খেলায় দল গঠনের পদ্ধতি ও তার পর্যায় সমূহ

খেলায় দল গঠনের পদ্ধতি ও তার পর্যায় সমূহ

বাংলা ভাষায় দল বুঝাতে একটি শব্দ ব্যবহৃত হলেও ইংরেজীতে দু’টি শব্দ Group ও Team ব্যবহৃত হয়। কোনো কোনো ক্ষেত্রে গ্রুপ অথবা টিম সমার্থক হলেও এদের মধ্যে কিছু ভিন্নতা আছে। Moorhead এবং Griffin এর মতে গ্রুপ তখনই গঠিত হয় যখন দুই বা ততোধিক ব্যক্তি মতামত আদান প্রদানের মাধ্যমে পরস্পরকে প্রভাবিত করে। অন্যদিকে টিম হচ্ছে একটি বিশেষ ধরনের গ্রুপ যেখানে সদস্যগণ একটি বিশেষ লক্ষ্য অর্জনের জন্য বিশেষ ক্ষমতা অর্জন করে এবং বিশেষ ধরনের এই অর্জনের জন্য তারা দায়বদ্ধ।

এই বিবেচনায় কোনো একটি খেলার দলকে গ্রুপ না বলে টিম বলাই যুক্তিযুক্ত। সাধারণ ভাবে ক্রীড়া মনোবিজ্ঞানের তত্ত্ব অনুযায়ী টিম বলতে সেই সমস্ত সদস্যকে বুঝায় যারা একসাথে কাজ (খেলা) করে এবং দলের সাফল্যে একে অপরের উপর শক্তিশালী প্রভাব বিস্তার করে। একটি দলের সাফল্য পাওয়া তখনই সম্ভব হবে যখন এই দলটি কিছু নির্দিষ্ট পর্যায়ভুক্ত শর্ত পূরণ করে গঠিত হবে।

দল গঠনের প্রাথমিক পর্যায়কে বলা হয় ‘গঠন পর্যায়’ বা Forming Stage। এই পর্যায়ে দলের সদস্যগণ পরস্পরের সাথে পরিচিত হয় এবং তাদেরকে দলের কিছু প্রাথমিক নিয়ম শৃঙ্খলা মানতে হয়।

দল গঠনের দ্বিতীয় পর্যায়কে বলাহয় ‘ঝঞ্জাময় পর্যায়’ অথবা Storming Stage। এই পর্যায়ে সদস্যগণ দলে তাদের পদমর্যাদার জন্য প্রতিযোগিতা করে এবং প্রত্যেকে তাদের অবস্থান অথবা পদ সুনির্দিষ্ট করে।

তৃতীয় পর্যায়কে বলা হয় ‘মান নির্ধারণী পর্যায়’ অথবা Norming Stage। এই পর্যায়ে দল স্থিতিশীল অবস্থায় আসে এবং পুর্ণাঙ্গ দল গঠিত হয়। দলের সদস্যগণ সংশক্তি (cohesin) এর মাধ্যমে পরস্পরের সাথে এবং দলের সাথে সংযোজিত হয়।

চতুর্থ পর্যায়কে বলা হয় ‘কার্যকর পর্যায়’ অথবা Performing Stage। এই পর্যায়ে দলের সদস্যগণ নিজের এবং দলের দায়িত্ব সম্পর্কে ওয়য়াকিবহল হয়। তারা সকলে মিলে কাজ করার নৈতিক ভিত্তি অর্জন করে। এবং এর মাধ্যমে লক্ষ্য অর্জন ও সাফল্য অর্জন শুরু করে।

সর্বশেষ পর্যায়কে বলা হয় ‘স্থগিত পর্যায়’ অথবা Adjurning Stage। এই পর্যায়ে দল তার সঠিক উদ্দেশ্যে সাফল্যমন্ডিত হতে থাকে।


প্রকাশিত মতামত লেখকের একান্তই নিজস্ব। মনের খবরের সম্পাদকীয় নীতি বা মতের সঙ্গে লেখকের মতামতের অমিল থাকতেই পারে। তাই মনের খবরে প্রকাশিত কলামের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নেবে না কর্তৃপক্ষ।