বিএসএমএমইউতে ‘আসুন বিষণ্নতা নিয়ে কথা বলি’ শীর্ষক মুক্ত আলোচনা

বিএসএমএমইউতে ‘আসুন বিষণ্নতা নিয়ে কথা বলি’ শীর্ষক মুক্ত আলোচনা

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ ডা. মিল্টন হলে বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস ২০১৭ উপলক্ষে ‘আসুন বিষণ্নতা নিয়ে কথা বলি’ শীর্ষক একটি মুক্ত আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোরোগবিদ্যা বিভাগের দিন ব্যাপী কর্মসূচির সমাপনী এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান।

মনোরোগবিদ্যা বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. ঝুনু শামসুন নাহারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. শারফুদ্দিন আহমেদ এবং উপ-উপাচার্য (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. শহীদুল্লাহ শিকদার উপস্থিত ছিলেন।

মুক্ত আলোচনায় বক্তারা এই ধরনের উদ্যোগের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোরোগবিদ্যা বিভাগকে ধন্যবাদ জানিয়ে বিষণ্নতাকে এই সময়ের অন্যতম গুরুতর সমস্যা হিসেবে উল্লেখ করেন। বক্তারা বলেন, বিশ্বের প্রায় ৩০০ মিলিয়ন মানুষ বিষণ্নতায় আক্রান্ত এবং আমাদের দেশে এ সংখ্যা প্রায় ৭০ লক্ষ। ১৬ থেকে ৪৪ বছরের মানুষ বিষন্নতায় বেশি ভোগে এবং এক্ষেত্রে মহিলাদের হার প্রায় দ্বিগুণ।

বেকারত্ব, পরিবারে ভাঙ্গনসহ বেশ কিছু সামাজিক সমস্যাকে বিষণ্নতার অন্যতম কারণ হিসেবে উল্লেখ করে বক্তারা বলেন, আমরা ফোন, ফেইসবুক, ইন্টারনেট ব্রাউস করি কিন্তু পাশের মানুষটির সাথে কথা বলি না। মন খুলে কথা বলে আমাদের বিষণ্নতা দূর করতে হবে এবং বিষণ্নতা নিয়েও কথা বলতে হবে বিষণ্নতা জানার, বোঝার এবং সচেতনতা তৈরির জন্য। এছাড়া আলোচনায় মানসিক রোগীদের অন্যচোখে না দেখে চিকিৎসকদের হাস্যজ্জলভাবে তাদের সেবা দানের আহ্বান জানানো হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বলেন, বিষণ্নতা মূলত দুটি কারণে হয়ে থাকে, অপ্রাপ্তি এবং শখ করে নেশা জাতীয় দ্রব্য গ্রহণের মাধ্যমে। পরিবেশ বিষণ্নতার ক্ষেত্রে খুবই গুরুত্বপূর্ণ উল্লেখ করে তিনি শিশু সময়ে, বয়ঃসন্ধি কালে সুন্দর পরিবেশ নিশ্চিত করার প্রতি গুরুত্বারোপ করেন।

সভাপতির বক্তব্যে অধ্যাপক ডা. ঝুনু শামসুন নাহার সকল অতিথিদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যা নিরসনে সবাইকে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানান।

এর আগে অনুষ্ঠানের শুরুতে একটি প্রশ্ন উত্তর পর্ব অনুষ্ঠিত হয় যেখানে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা সংশিষ্ট বিষয়ে নানা প্রশ্ন করেন এবং বিশেষজ্ঞরা এর উত্তর দেন।

প্রতিবেদক, মনেরখবর.কম


লক্ষ্য করুন- মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক খবর বা প্রেস রিলিজও আমাদের পাঠাতে পারেন। বৈজ্ঞানিক সেমিনার, বিশেষ ওয়ার্কশপ, সাংগঠনিক কার্যক্রমসহ মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক যে কোনো খবর পাঠাতে news@monerkhabor.com এই ইমেইলটি ব্যবহার করতে পারেন আপনারা।