আমি ছয় বছর ধরে ওসিডি-তে ভুগছি

আমি ছয় বছর ধরে ওসিডি-তে ভুগছি

সমস্যা:
আসসালামু আলাইকুম। আমি নাম প্রকাশে ইচ্ছুক নই বলে দুঃখিত। আমি ছয় বছর ধরে ওসিডি-তে ভুগছি। চার থেকে পাঁচ মাস আগে একজন বিশেষজ্ঞকে দেখিয়েছি। তিনি আমাকে প্রোডেপ ২০ মিগ্রা. খেতে বলেছিলেন দৈনিক ১ টি করে। এর কয়েকমাস পরে তিনি ডোজ বাড়িয়ে দিলেন অর্থাৎ দৈনিক ২ টি করে খেতে বলেছিলেন। এখনও দৈনিক ২ টি করে খাচ্ছি। যদিও বেশ ভালোই কাজ হচ্ছিল অর্থাৎ বেশ খানিকটা ভালো হয়েছি। কিন্তু গত এক মাস যাবৎ আমার মধ্যে আবার ওসিডি এর প্রাথমিক কিছু উপসর্গ দেখা দিতে শুরু করলো, যে উপসর্গগুলো ওষুধ সেবনের পর মাঝে প্রায় বন্ধ ছিল। আমার ক্ষেত্রে কি ওষুধটি ঠিক আছে? আর এই ওষুধটি কাজ করা হঠাৎ বন্ধ করে দেয় কি না? কিংবা ওসিডি কি আবার বিপরীত দিকে ফিরে যেতে পারে?

একটি বিষয় জানিয়ে রাখি। ডাক্তার বলেছিল আমাকে সকালে ওষুধ সেবন করতে। কিন্তু আমি বেশিরভাগ সময়ই সকাল ১১ টা থেকে দুপুর ১২ টার মধ্যে ওষুধ সেবন করিএর ফলে কোনো সমস্যা আছে কি না?

 

উত্তর:
ওসিডি (অবসেসিভ কমপালসিভ ডিজঅর্ডার)-এর মতো কমন কিন্তু  চিকিৎসায় নিয়ন্ত্রণযোগ্য অসুখ নিয়ে প্রশ্ন করার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। ডায়াবেটিস, প্রেসার, হাঁপানির ন্যায় আর আট দশটা নন কমিউনিকেবল ডিজিজের মতো শুচিবাই একজনের জন্য সারাজীবনের অসুখ। একে নিয়ন্ত্রণে রাখতে হয়। ঔষধ এবং সাইকোথেরাপীর দ্বারা চিকিৎসা করতে হয় এবং ভালো হয়। চিকিৎসায় ভালো হলেও জীবনের চড়াই উৎরাই মুহুর্তে এর প্রকোপ প্রকাশ পায়।  যেমন- পরীক্ষা, আপনজনের রোগ শোক। কাজেই এ রোগের গতিবিধি বুঝে হতাশ না হয়ে চিকিৎসা চালিয়ে যেতে হবে। এ জন্য আপনার  প্রডেপদেড় -দুই বছর দৈনিক ৪০-৬০ মিগ্রা. করে খেয়ে যেতে হবে, সাথে সাইকোথেরাপিও লাগবে। এ জন্য আপনার সাইকিয়াট্রিস্ট এর পরামর্শ নিন।

আরেকটি কথা না বললেই নয়, তাহলো  ছোটো থাকতেই সমস্যার সমাধান করা সহজ, লুকিয়ে রেখে জটিল করার মধ্যে কোনো কৃতিত্ব নেই। আবারো ধন্যবাদ। 

পরামর্শ দিচ্ছেন,
ডা. আর কে এস রয়েল


দৃষ্টি আকর্ষণ- মনেরখবর.কম এর প্রশ্ন-উত্তর বিভাগে, মানসিক স্বাস্থ্য, যৌন স্বাস্থ্য, মাদকাসক্তি সহ মন সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয়ে আপনার কোনো জানার থাকলে বা প্রশ্ন থাকলে বা বিশেষজ্ঞ পরামর্শ দরকার হলে question@monerkhabor.com এই ইমেলের মাধ্যমে প্রশ্ন পাঠাতে পারেন।

ডা. আর কে এস রয়েল

বিভাগীয় প্রধান, সাইকিয়াট্রি, এম.এ.জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, সিলেট