মূল পাতা / তারকার মন / একা ভালো থাকলে হবে না, সবকিছু নিয়েই ভালো থাকতে হবে: পাপিয়া সারোয়ার

একা ভালো থাকলে হবে না, সবকিছু নিয়েই ভালো থাকতে হবে: পাপিয়া সারোয়ার

তেমন রাগ নেই তাঁর। নেই জেদও। মাঝে মাঝে অবাক হয়ে যান ভেবে, কেন রাগ-জেদ এতটা কম? তিনি বিশ্বাস করেন, আশেপাশের সব মানুষকে নিয়ে ভালো থাকতে হয়। আর প্রখ্যাত রবীন্দ্রসঙ্গীত শিল্পী পাপিয়া সারোয়ারের কাছে গান হলো মেডিটেশন। তাঁর মুখোমুখি হয়েছেন আরমান কামাল মখ : কেমন আছেন? উত্তর : খুব ভালো। মখ : নিজেকে কিভাবে ভালো রাখেন? উত্তর : সবসময় গানের মাধ্যমেই ভালো থাকি। গান শুনি, গান করি, সময় পেলে রেওয়াজ করি। নিজে একটু গাওয়ার চেষ্টা করি। বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে গান হয়। ভালো গান হলে অবশ্যই শুনি। সিডিতে শুনছি, টিভিতে শুনছি। উচ্চাঙ্গসঙ্গীত বল, রবীন্দ্রসঙ্গীত বল, একটা ভালো গান শুনলে খুব ভালো লাগে।
মখ : সাধারণ অনুভূতি কষ্ট, রাগ, হিংসা কিভাবে নিয়ন্ত্রণ করেন? উত্তর : এগুলো তো সবার জন্যই খারাপ। রাগ খুব কম করতে চাই। একদমই করতে চাই না। রাগ করলে নিজেরই শরীর খারাপ হয়। রাগটা আবার চলেও যায়। এটাও আমার নিজের উপর রাগ লাগে যে রাগটা কেন থাকে না! জেদটা তো থাকবে নাকি! ধর, কারো উপর রাগ করলাম, পরের দিনই সেটা ভুলে যাই!
ছবিঃ
মখ : দৈনন্দিন জীবনে হেরফের হলে যেমন খাওয়াদাওয়া, ঘুম সেগুলোকে নিয়ন্ত্রণে আনতে কী করেন? উত্তর : কিছু করতে হয় না। সবকিছুই মানিয়ে নিতে পারি। মখ : মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়টিকে কিভাবে দেখেন? উত্তর : মানসিক স্বাস্থ্য তো সব পারিপার্শ্বিক অবস্থা মিলিয়ে। একা ভালো থাকলে হবে না, সবকিছু নিয়েই ভালো থাকতে হবে। আমার ভাইবোন, আত্মীয়স্বজন, বন্ধুবান্ধব, দেশটা, চারপাশ, সবকিছু মিলিয়েই…। কারণ প্রতি মুহূর্তে শুনছি… সারা পৃথিবীর খবর আমরা এখন প্রতি মুহূর্তেই পাই। তাই সমস্ত কিছু মিলিয়েই ভালো থাকা। মখ : অন্যরা যাতে আপনাকে ভালোবাসে বা অন্যদের যাতে ভালো লাগে, সেদিকে কতটুকু সচেতন?
উত্তর : চেষ্টা তো করি। সবসময় তো আর সম্ভব হয়ে ওঠে না। কিন্তু যতটুকু সাধ্য চেষ্টা করি।
ছবিঃ
মখ : যদি অন্য পেশায় থাকতেন সেখানে নিজেকে কোন উচ্চতায় দেখতে চাইতেন? উত্তর : সেটা এখনো ভেবে দেখিনি। শিক্ষকতাই বেছে নিয়েছি। বাসায় গান শেখাই। কিন্তু মিউজিক কলেজে জয়েন করতে হবে, নামকরা হতে হবে, বা রোজ কোনো গতানুগতিক নিয়মের ভেতর দিয়ে যেতে হবে, এটা আমি মানতে পারি না। আগে থেকেই মানতে পারতাম না।
একা ভালো থাকলে হবে না, সবকিছু নিয়েই ভালো থাকতে হবে। আমার ভাইবোন, আত্মীয়স্বজন, বন্ধুবান্ধব, দেশটা, চারপাশ, সবকিছু মিলিয়েই…। কারণ প্রতি মুহূর্তে শুনছি… সারা পৃথিবীর খবর আমরা এখন প্রতি মুহূর্তেই পাই। তাই সমস্ত কিছু মিলিয়েই ভালো থাকা।
মখ : যে কোনো সাফল্যের জন্য মানসিক সুস্থ্যতা কি জরুরি?
উত্তর : বেঁচে থাকতে হলে তো অবশ্যই সুস্থ্য থাকাটা জরুরি। যে কদিন বাঁচি আমরা, সবাই সুস্থভাবেই বেঁচে থাকতে চাই। মখ : স্মৃতিকাতরতায় ভোগেন?
উত্তর : সে তো সবাই ভোগে। এটা আসলে আশেপাশের পরিবেশের উপর নির্ভর করে। মখ : তখন কি করেন? উত্তর : কাটিয়ে উঠতে চেষ্টা করি। এই প্রভাব তো খুবই পড়ে। কিছু পারিবারিক ঘটনা আছে। তোমরা জানো কি না জানি না, কিছুদিন আগে আমার সেজ বোনের হাসবেন্ড ও তার ছেলে দুজনকেই বাসায় ঢুকে মেরে ফেলেছে। নূরুল ইসলাম ভাই শ্রমিক নেতা ছিলেন। লালমাটিয়ায় বাসায় তারা মারা গেছেন। এগুলো তো ছাড়তে পারি না তাই না? এসব ঘটনা ভাবায়। এই ব্যথা কাটিয়ে উঠতে চেষ্টা করি। ছোট ভাইটাও নেই। গত বছর হঠাৎ করেই মারা গেল।
কিছু পারিবারিক ঘটনা আছে। তোমরা জানো কি না জানি না, কিছুদিন আগে আমার সেজ বোনের হাসবেন্ড ও তার ছেলে দুজনকেই বাসায় ঢুকে মেরে ফেলেছে। নূরুল ইসলাম ভাই শ্রমিক নেতা ছিলেন। লালমাটিয়ায় বাসায় তারা মারা গেছেন। এগুলো তো ছাড়তে পারি না তাই না? এসব ঘটনা ভাবায়। এই ব্যথা কাটিয়ে উঠতে চেষ্টা করি। ছোট ভাইটাও নেই। গত বছর হঠাৎ করেই মারা গেল।