মূল পাতা / শিশু কিশোর / শিশুর আত্নবিশ্বাস বাড়াবেন যেভাবে

শিশুর আত্নবিশ্বাস বাড়াবেন যেভাবে

আত্মবিশ্বাসী বাচ্চা জীবনের অনেক প্রতিকূলতা খুব সহজেই মোকাবেলা করতে পারে। জীবনের সকল পদক্ষেপ সঠিক ভাবে নিতে সেলফ কনফিডেন্স দারুণ সহায়তা করে থাকে। বাচ্চার সেলফ কনফিডেন্স এর বুনিয়াদ শুরু হয় নিজের ঘর থেকেই। তাই বাবা-মার উচিৎ কিভাবে বাচ্চার সেলফ কনফিডেন্স বাড়ানো যায় সেই দিকে লক্ষ্য রাখা।

তাই শিশুকে আত্মবিশ্বাসী হিসেবে গড়ে তুলতে হলে কিছু বিষয় খেয়াল রাখা জরুরি।

শিশুর সব কাজ করে দেবেন না

সন্তান কখন নিজের কাজ নিজে করতে পারবে, বাবা- মা হিসেবে এটা বোঝা বেশ গুরুত্বপূর্ণ। শিশুর নিজের কাজ নিজেকে করতে দিলে সে যেমন স্বনির্ভর হতে শেখে তেমনি তার দক্ষতাও বাড়ে এতে। যেমন- জামা কাপড় নিজে পরা, খাবারের টেবিল গোছানো- এসব শিশুকে নিজে থেকে করতে দিন।

তুলনা করা বন্ধ করুন

আপনার শিশু হয়তো লেখাপড়া, খেলাধুলা বা সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডে আপনার স্বপ্ন পূরণ করতে পারছে না। এক্ষেত্রে তার উপর রাগ করা থেকে বিরত থাকুন। কখনও আপনার সন্তানকে তার ক্লাসমেট বা  বন্ধুদের সঙ্গে তুলনা করবেন না। এতে সে আরও ভেঙ্গে পড়ে লেখাপড়া বা অন্য কাজে নিরুৎসাহিত হয়ে উঠতে পারে।

ঘরের কাজ শেখান তাদের

শিশুদের এমন কিছু দায়িত্ব দেয়া যেতে পারে, যাতে করে তারা ঘরের কিছু কাজে আপনাদের  সাহায্য করতে পারে। এই ধরনের দায়িত্ব পেয়ে শিশু নিজেকে মূল্যায়ন করা হচ্ছে ভাবতে শিখবে। ঘর পরিষ্কার করা, নিজের বিছানা গোছানো, নিজের ব্রেকফাস্ট বা খাবার নিজে নিয়ে যাওয়া, এমন সব কাজে শিশুকে উদ্বুদ্ধ করতে পারেন।

তাদেরকে ব্যর্থতা সামলে নিতে শেখান

লেখা পড়া, খেলা বা অন্য কিছুতে ব্যর্থ হলে শিশুকে শাসন করার পরিবর্তে তাকে ঐ পরিস্থিতি সামলে উঠতে সাহায্য করুন। তাকে বুঝান যে কেউই পারফেক্ট না। এতে করে শিশু ছোটবেলা থেকেই নিজেকে ভালোবাসতে পারবে ও তার আত্মবিশ্বাস বাড়বে।

অতিরিক্ত প্রশংসা করবেন না

শিশুর ভুলের জন্য তাকে বেশি শাসন করা যেমন ঠিক না, তেমনি কোনও কাজে সফল হলে তার অতিরিক্ত প্রশংসা করবেন না। এতে করে সে আরও সফল হওয়ার আগ্রহ হারিয়ে ফেলবে।

যা শেখাচ্ছেন সেটি নিজে পালন করুন

শিশুরা বাবা- মায়ের আচরণ দেখেই শিখে। তাই সন্তানের নিজের প্রতি ভালোবাসা ও আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে তোলার আগে নিজেকে ভালোবাসুন। আপনার সফলতা উদযাপন করুন, ব্যর্থতা থেকে শিখুন। এসব কিছু যেন আপনার সন্তান দেখে শিখতে পারে, সে সুযোগ দিন তাদের।

শিশুর শখ সমর্থন করুন

আপনার শিশু কি করতে ভালোবাসে, তার শখ গুলো কী, সেসব জানতে প্রতিদিন তার সঙ্গে কথা বলুন। তার স্বপ্ন পূরণে সমর্থন দিন। এতে  করে তার আত্মবিশ্বাস বাড়বে।

তথ্যসূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া