মূল পাতা / শিশু কিশোর / অটিষ্টিক শিশুদের ভাষা সমস্যা

অটিষ্টিক শিশুদের ভাষা সমস্যা

মানুষ সামাজিক জীব। প্রতিনিয়ত তাকে অন্যের সাথে বিভিন্ন ধরনের সামাজিকতা সম্পন্ন করতে হয় এর মধ্যে যোগাযোগ বা সংজ্ঞাপন অন্যতম। যোগাযোগ সামাজিকতার একটি দ্বিমুখী প্রক্রিয়া যার জন্য প্রয়োজন যৌথ মনোযোগ। আর ভাষা হচ্ছে যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম। ভাষার মাধ্যমে আমরা আমাদের মৌলিক আবেগ আকাঙ্খা অর্থাৎ মনোগত অবস্থাকে যেমন- চিন্তা, অভিপ্রায়, কামনা, অভিলাষ, স্বপ্ন, কল্পনা এবং ছলনা ইত্যাদি অন্যের কাছে প্রকাশ করি এবং অন্যের মনেও যে এগুলির অস্তিত্ব আছে তা বুঝতে পারি।

যোগাযোগ এবং সামাজিকতা তখনই একটি মানুষের স্বয়ংসম্পূর্ণ এবং অর্থবোধক হয়, যখন ভাষার বাচনিকতা সাথে সাথে অবাচনিকতার বিভিন্ন উপাদান যুক্ত হয়ে অন্যের কাছে অর্থবহ রুপে প্রতিবেশ এবং পরিবেশ অনুযায়ী প্রকাশ হয়।

মাতৃগর্ভে থাকাকালেই মানসিক বিকাশের সাথে সাথে ভাষা বিকাশের পর্বটি শুরু হয়। জন্মের পরই বয়স বাড়ার সাথে সাথে ভাষা আয়ত্তকরনের তত্ত্ব অনুসারে একটি স্বাভাবিক শিশু পরিপার্শ্ব থেকে “ইনপুট” প্রক্রিয়ায় মাতৃভাষা আয়ত্তকরনের বিবিধ বস্তুসত্তা ও ভাবসত্তা চিনে তা নিজের প্রজ্ঞান কাঠামোতে ধারন করে এবং পরবর্তীতে প্রতিবেশ এবং পরিবেশ অনুযায়ী ব্যবহার করে থাকে আর ব্যতিক্রম ঘটে তখনই যখন কোন মানুষ তার সামাজিক কর্ম সম্পন্ন করতে গিয়ে বাচনিকতা বা অবাচনিকতার কোনটিরই আশ্রয় নিতে না পারে। তখনই তার ভাষা বৈকল্যের বিষয়টি স্পষ্ট হয়ে ওঠে।

বর্তমানে ভাষা সমস্যায় আক্রান্ত শিশুর সংখ্যা উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে। অটিষ্টিক অথবা অটিজম বর্ণালী বৈকল্য শিশুরা তাদের মধ্যে অন্যতম। অটিজম হচ্ছে মস্তিষ্ক বিকাশের একটি অসম্পূর্ণ অবস্থা যেখানে একটি শিশুর মানসিক বিকাশের পাশাপাশি ভাষা বিকাশের এবং প্রকাশের অসম্পূর্ণতা লক্ষনীয়, যার দরুন অটিষ্টিক শিশুরা যৌথ মনোযোগের মাধ্যমে সংজ্ঞাপন করে অনের মনোগত অবস্থাকে যেমন বুঝতে পারে না তেমনিভাবে নিজের মনোগত অবস্থাকে অন্যের কাছে প্রকাশ করতে পারে না অথবা বিলম্ব ঘটে। এর ফলে অটিষ্টিক শিশুদের মধ্যে কিছু অকার্যকর বা অনুপোযোগী আচরণ যেমন- বার বার পুনরাবৃত্তি, আত্মঘাতমূলক, আগ্রাসনমূলক এবং ধ্বংসাত্মক আচরণ পরিলক্ষিত হয়।

উপরোক্ত বিষয়গুলো যদি আপনার শিশুর মধ্যে পরিলক্ষিত হয় তবে তখনই তাকে চিকিৎসার আওতায় আনতে হবে একটি অর্থবহ জীবন যাপনের উদ্দেশ্যে।

ডা. ফাহমিদা ফেরদৌস
চিকিৎসা ভাষাবিদ এবং মনোরোগ বিশেষজ্ঞ
সহকারী অধ্যাপক (মনোরোগ বিদ্যা বিভাগ)
জেড,এইচ, সিকদার ওমেন্স মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল।

ভাষাবিদ এবং মনোরোগ বিশেষজ্ঞ, সহকারী অধ্যাপক (মনোরোগ বিদ্যা বিভাগ), জেড.এইচ. সিকদার ওমেন্স মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল।