মূল পাতা / প্রতিদিনের চিঠি / অতিরিক্ত টেনশন করা কি মানসিক রোগ?

অতিরিক্ত টেনশন করা কি মানসিক রোগ?

আমাদের প্রতিদিনের জীবনে ঘটে নানা ঘটনা, দূর্ঘটনা। যা প্রভাব ফেলে আমাদের মনে। সেসবের সমাধান নিয়ে ’‘প্রতিদিনের চিঠি’ বিভাগ।  এই বিভাগে প্রতিদিনই আসছে নানা প্রশ্ন। যেগুলোর উত্তর দিচ্ছেন অধ্যাপক ডা. সালাহ্‌উদ্দিন কাউসার বিপ্লব। আমাদের আজকের প্রশ্ন পাঠিয়েছেন আহমেদ্ শাহ্ ফাহাদ-

প্রতিদিনের চিঠি

চিঠি

আমার এক বন্ধু, নাম ইলিয়াস। তার সমস্যা হল সামান্য ব্যাপারে অতিরিক্ত টেনশন করে। অতিরিক্ত টেনশন করা কি মানসিক রোগ?

উত্তর

অতিরিক্ত টেনশনের কারণে যদি কারো কাজের সমস্যা হয় তবে সেটা রোগের পর্যায়ে পড়বে। এমনিতে কোন একটা বিষয়ে মানুষের টেনশন হবে, অস্থিরতা লাগবে এটা স্বাভাবিক। এসব বিষয়ে মনের খবরে আগে অনেক লেখা গেছে, সেসব দেখে নিতে পারেন। এই সমস্যা সমাধানের জন্য অনেক সময় চিকিৎসা চালিয়ে যেতে হবে এমন কোনো কথা নেই। থাইরয়েড পরীক্ষা করিয়ে নিতে পারলে ভালো হয়। রিলাকজেশন বা মেডিটেশনের মত বিষয়গুলি এক্ষেত্রে উপকারী হয়। হাঁপানি না থাকলে ট্যাবলেট ইনডেভার ১০ মিগ্রা সকালে আর রাতে একটা করে খেতে পারে। তবে সরাসরি দেখা করে চিকিৎসা নেয়া সবসময়ই ভালো। সুস্থতা কামনা করছি।

ইতি,
প্রফেসর ডা. সালাহ্উদ্দিন কাউসার বিপ্লব
  • চেয়ারম্যান ও অধ্যাপক - মনোরোগবিদ্যা বিভাগ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়।
  • সেকশন মেম্বার - মাস মিডিয়া এন্ড মেন্টাল হেলথ সেকশন অব 'ওয়ার্ল্ড সাইকিয়াট্রিক এসোসিয়েশন'।
  • কোঅর্ডিনেটর - সাইকিয়াট্রিক সেক্স ক্লিনিক (পিএসসি), মনোরোগবিদ্যা বিভাগ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়।
  • সাবেক মেন্টাল স্কিল কনসাল্টেন্ট - বাংলাদেশ ন্যাশনাল ক্রিকেট টিম।
  • সম্পাদক - মনের খবর। চেম্বার তথ্য - ক্লিক করুন