মূল পাতা / প্রতিদিনের চিঠি / একা ঘরে থাকতেও ভয় পায়

একা ঘরে থাকতেও ভয় পায়

আমাদের প্রতিদিনের জীবনে ঘটে নানা ঘটনা, দুর্ঘটনা। যা প্রভাব ফেলে আমাদের মনে। সেসবের সমাধান নিয়ে ‘প্রতিদিনের চিঠি’ বিভাগ। এই বিভাগে প্রতিদিনই আসছে নানা প্রশ্ন। যেগুলোর উত্তর দিচ্ছেন অধ্যাপক ডা. সালাহ্‌উদ্দিন কাউসার বিপ্লব। আমাদের আজকের প্রশ্ন পাঠিয়েছেন মিজানুর রহমান (ছদ্মনাম) –

প্রতিদিনের চিঠি

চিঠি

আমার স্ত্রীর বয়স ৩৫। বছর পাঁচেক হল সে প্রতি রাতে ঘুমের মধ্যে চেচিয়ে ওঠে, গালাগালি করে। বলে ভৌতিক চেহারার কেউ তাকে গলা চেপে ধরছে। সে একা ঘুমাতেও ভয় পায়। ইদানিং ভয় এত বেড়েছে যে সন্ধ্যার পর একা ঘরে থাকতেও ভয় পায়। ওর কি কোন মানসিক রোগ হয়েছে?

উত্তর

প্রশ্নের জন্য ধন্যবাদ। মানসিক রোগ কিনা সেটা এভাবে বলা কঠিন। কিন্তু মানসিক সমস্যা তো অবশ্যই। পাঁচ বছর যাবত সমস্যা, এর মধ্যে ডাক্তার দেখিয়েছেন কিনা বলেন নি। দেখানো দরকার ছিল। এখন ঘুমাতেও সমস্যা আবার সন্ধ্যার পর একা থাকাও সমস্যা। তারমানে সমস্যা ভালোই। এই সমস্যাটি কয়েকটি কারনে হতে পারে। ঘুমের সমস্যা, ঘুমের রোগ, বিষণ্ণতা বা অন্য আরো কোনো মানসিক রোগের প্রভাবেও হতে পারে। যে কারনেই হোক। সরাসরি ডাক্তার দেখিয়ে চিকিৎসা করানোই ভালো। যথাযথ চিকিৎসা হলে এই সমস্যা দূর হওয়াটা কথা। আপাতত টেবলেট মিরাপ্রো ৭.৫ মিগ্রা রাতে একটা করে শুরু করতে পারেন। আর দুঃস্বপ্ন দেখা রোগটি স্লিপ ডিজঅর্ডার বা ঘুমের সমস্যাজনিত রোগ। আরো সঠিক করে বলতে গেলে ‘নাইট ম্যায়ার’। এতে মানুষ হঠাৎ করে ঘুমের ভিতর দুঃস্বপ্ন দেখে জেগে উঠে। বেশির ভাগ সময় প্রায় পুরো স্বপ্নটাই মনে করতে পারে। সাধারণ ভয়ের কোন একটি বিষয় ঘটে। একই স্বপ্ন বা প্রায় একই স্বপ্নই বারবার দেখে। ভয় নিয়েই ঘুম থেকে উঠে। কম বয়সীদের মধ্যেই এই সমস্যা বেশি দেখা যায়। তবে বড়দেরও হতে পারে। শেষ রাতের দিকেই এই সমস্যা বেশি হয়। বলা হয় কেউ যদি উদ্বিগ্নতায় বা বিষণ্ণতায় বা বিশেষ কোনো মানসিক সমস্যায় ভোগে তাদের বেশি হয়। কোনো কোনো ওষুধ বা শারীরিক রোগের কারনেও নাইট ম্যায়ার হতে পারে। সুতরাং চিকিৎসার ক্ষেত্রে প্রথমেই দেখতে হবে পিছনে কোনো কারণ আছে কিনা। থাকলে সেই কারণের চিকিৎসা বা সমাধান জরুরি।

ইতি,
প্রফেসর ডা. সালাহ্উদ্দিন কাউসার বিপ্লব
  • চেয়ারম্যান ও অধ্যাপক - মনোরোগবিদ্যা বিভাগ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়।
  • সেকশন মেম্বার - মাস মিডিয়া এন্ড মেন্টাল হেলথ সেকশন অব 'ওয়ার্ল্ড সাইকিয়াট্রিক এসোসিয়েশন'।
  • কোঅর্ডিনেটর - সাইকিয়াট্রিক সেক্স ক্লিনিক (পিএসসি), মনোরোগবিদ্যা বিভাগ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়।
  • সাবেক মেন্টাল স্কিল কনসাল্টেন্ট - বাংলাদেশ ন্যাশনাল ক্রিকেট টিম।
  • সম্পাদক - মনের খবর। চেম্বার তথ্য - ক্লিক করুন