মূল পাতা / প্রতিদিনের চিঠি / ছোট ভাই আগে অনেক হাসিখুশি ছিল

ছোট ভাই আগে অনেক হাসিখুশি ছিল

আমাদের প্রতিদিনের জীবনে ঘটে নানা ঘটনা,দুর্ঘটনা। যা প্রভাব ফেলে আমাদের মনে। সেসবের সমাধান নিয়ে ‘প্রতিদিনের চিঠি’ বিভাগ। এই বিভাগে প্রতিদিনই আসছে নানা প্রশ্ন। যেগুলোর উত্তর দিচ্ছেন অধ্যাপক ডা. সালাহ্‌উদ্দিন কাউসার বিপ্লব। আমাদের আজকের প্রশ্ন পাঠিয়েছেন বাবলু দাস (ছদ্মনাম) –

প্রতিদিনের চিঠি

চিঠি

আমার ছোট ভাই আগে অনেক হাসিখুশি ছিল। মা মারা যাওয়ার পর বাবা আবার বিয়ে করেন। এর পর থেকে ও কেমন জানি হয়ে যায়, কারো সাথে তেমন কথা বলে না। একা একা সারাদিন দরজা বন্ধ করে থাকে। সারাদিন ঘুমায় কিন্তু সারারাত জেগে থাকে আর রাতে রাস্তায় হাঁটে। পরিবারের কাউকে পছন্দ করে না, কেউ ভালো কিছু বোঝালে খুব বিরক্ত হয়। সব সময় নিজেকে আড়াল করে রাখে। ওয়াশরুমে গেলে অনেকক্ষণ থাকে, প্রচুর পানি ফেলে। আর ও কোনো দোষ করলে নিজের মতো করে এমন কিছু গল্প বানায় যা শুনলে যে কেউ তার কথা বিশ্বাস করবে। পড়াশুনায় খুব ভালো ছিল এখন পড়াশুনাও হচ্ছে না। আরো অনেক কিছু ,যা বলে শেষ হবে না। মোটকথা ওর মনে যা হয় তাই করে, কারো কোনো কথা কানেও তোলে না। এটা কি কোনো রোগ? ডাক্তার দেখাতে চাইলে ও আরো রিয়্যাক্ট করে।

উত্তর

অবশ্যই এটা একটা বড় সমস্যা। সামাধানের বিষয়ে যত দেরী করবেন সমস্যা তত বাড়বে। আপনাকে অনেক ধন্যবাদ, আপনি আপনার ছোট ভাইয়ের বিষযটি ভালো করে নজরে এনছেন এবং তাকে কি করলে ভালো করা যায় সেবিষয়ে চিন্তা করছেন। আজকাল মানুষ নিজেকে নিয়ে এতো ব্যস্ত যে ভাইবোনোর সুন্দর সম্পর্ক পর্যন্ত সুন্দর থাকছে না। আপনার সাথে যদি ভালো সম্পর্ক থাকে, যদি আপনার কথা শুনে তবে দেরী না করে আমাদের মতো কারো সাথে সরাসরি যোগাযোগ করুন।

অনেকগুলি বিষয় এখানে হতে পারে। এক হতে পারে বিষণ্ণতা, হতে পারে আরো কোনো জটিল ধরনের মানসিক রোগ, মাদকাসক্তিও বাদ যাবে না। দিনে দরজা বন্ধ করে ঘুমায়, রাতে সজাগ থাকে – রাস্তায় হাঁটে, এসব বিষয়গুলি খুবই গুরুত্বপূর্ণ তথ্য। একা একা থাকে, কথা বলে না, বিরক্ত হয় এসব কোনো বিষয়কেই অবহেলা করা যাবে না। যেহেতু পড়ালেখায় ভালো ছিলো সেটা ভালো করে শেষ করতে এবং ভালো একটা ভবিষ্যত বানানোর জন্যও দ্রুত চিকিৎসা করানো দরকার। ডাক্তার দেখাতে চাইলে রিয়্যাক্ট হয়তো অনেক কারণেই করে। মন, খারাপ বা রোগ দুটোই এর সাথে সরাসরি যুক্ত থাকতে পারে। যেটাই হোক প্রয়োজনে জোর করে হলেও দ্রুত চিকিৎসার আওতায় আনতে হবে। আপনাদের সম্পর্ক আরো সুন্দর হোক, আরো জোরালো, আরো আবেগময় হোক। সাবাই মিলে ভালো থাকুন সেই কামনায়। আবারো ধন্যবাদ।

ইতি,
প্রফেসর ডা. সালাহ্উদ্দিন কাউসার বিপ্লব
  • চেয়ারম্যান ও অধ্যাপক - মনোরোগবিদ্যা বিভাগ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়।
  • সেকশন মেম্বার - মাস মিডিয়া এন্ড মেন্টাল হেলথ সেকশন অব 'ওয়ার্ল্ড সাইকিয়াট্রিক এসোসিয়েশন'।
  • কোঅর্ডিনেটর - সাইকিয়াট্রিক সেক্স ক্লিনিক (পিএসসি), মনোরোগবিদ্যা বিভাগ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়।
  • সাবেক মেন্টাল স্কিল কনসাল্টেন্ট - বাংলাদেশ ন্যাশনাল ক্রিকেট টিম।
  • সম্পাদক - মনের খবর। চেম্বার তথ্য - ক্লিক করুন