মূল পাতা / ফিচার / মন ও ভবের সংসার

মন ও ভবের সংসার

চার দেওয়ালের মধ্যে নাকি সংসার নামক ধারণার বাস। আর মনের অবস্থান আট কুঠুরি, নয় দরজার একেবারে ভেতরের প্রকোষ্ঠে। সেখানে মন আছে কিনা এ নিয়ে নানা তর্ক-বিতর্ক আছে। সংসারেও আছে মনের অস্তিত্ব।

মন নিয়ন্ত্রণকারী মগজ নামক বস্তুটার অবস্থান মাথায়, কিন্তু মন খারাপ হলেই সবাই বুকের ভেতরে হাত চেপে ধরে বসে থাকে। সংসারের বিষয়টাও অনেকটা এমন, ভালো থাকলে ভালোই কিন্তু খারাপ হলেই সব দোষ এই জগতের। তখন সংসারের ব্যাপ্তি আর চার দেওয়ালের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকে না। সংসার ছড়িয়ে পড়ে মহাজগতে।

Vober Songshar-002

আটপৌরে মানুষদের মনে আবার সংসারের ধারণাটা বিয়ের পড়েই নাকি শুরু হয়। এই যে জন্মের পর বেড়ে ওঠা, এতো কিছু শেখা সেটি নাকি আদতেই সংসার নয়। কোনও একজনের সঙ্গে বিয়ের পর ঘর বাড়ি গুছিয়ে সন্তান-সন্ততি জন্ম দিয়ে তাদের আহারের যোগান দিলে নাকি সংসারের আসল সংজ্ঞা জানতে পারা যায়। তাহলে তো এই মনকে সংসারের জন্য বহুদিন অপেক্ষা করতে হবে।

কিন্তু বাস্তবিক অর্থে সংসার কিন্তু তা নয়। জন্ম নেওয়া মাত্রই এই ধরাধামের জাগতিক সংসারে মানুষের প্রবেশ ঘটে। সে মন চাইলেও ঘটে, না চাইলেও ঘটে।

তবে নিজের সংসার, নিজের ঘর, নিজের পরিজনের জন্য মানব মনের তীব্র আকাঙ্ক্ষা কিন্তু উপেক্ষা করবার নয়। এটি আরেকটি ভিন্ন জগত। সংসারের বিস্তার যেমন করেই ঘটুক, আমিত্বের বিস্তার বুদ্ধি জ্ঞানের সঙ্গে সঙ্গে মন একটু বাড়তি কিছু চায়। সংসারে নিজের অবস্থান চায়। হাত পা ঝেরে নিজের মতো থাকতে চায়। সংসারে মনের এই থাকতে চাওয়াটাই মায়া। এই মায়াই সংসার ও মনের অমোঘ বন্ধন তৈরি করে।

ফাতেমা আবেদীন নাজলা
ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক ইন-চার্জ, বাংলা ট্রিবিউন


***প্রকাশিত মতামত লেখকের একান্তই নিজস্ব। মনেরখবর-এর সম্পাদকীয় নীতি/মতের সঙ্গে লেখকের মতামতের অমিল থাকতেই পারে। তাই এখানে প্রকাশিত লেখার জন্য মনেরখবর কর্তৃপক্ষ লেখকের কলামের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে আইনগত বা অন্য কোনও ধরনের কোনও দায় নেবে না।***