মূল পাতা / ফিচার / বিষণ্ণতা আর মন খারাপ এক নয়

বিষণ্ণতা আর মন খারাপ এক নয়

বিশ্বের বিপুলসংখ্যক মানুষ বিষণ্ণতার সঙ্গে যুদ্ধ করছে। যদিও আমরা প্রায়ই বহুল প্রচলিত এ শব্দটির সঙ্গে বিমর্ষতা বা মন খারাপকে গুলিয়ে ফেলি। মন খারাপ ও বিষণ্ণতার লক্ষণগুলো প্রায় একই। তাই অনেকেই অতিরিক্ত মন খারাপকে ‘বিষণ্ণতা’ বলে মনে করেন। যদিও বিষণ্ণতা ও মন খারাপের মধ্যে রয়েছে বিস্তর ফারাক।

জীবনের খুব কঠিন সময়ে যে কারো মন খারাপ হওয়াটা একটি স্বাভাবিক ব্যাপার। আবার খারাপ সময় কেটে গেলে ভালো বা আনন্দময় মুহূর্তে আমাদের মন খুশিতে উদ্বেলিত হয়। অন্যদিকে, বিষণ্ণতা একটি মানসিক রোগ। এটি কখনো কখনো ভয়ঙ্কর হয়ে উঠতে পারে। তাই প্রয়োজন হয় বিশেষজ্ঞের পরামর্শনেয়ার। কীভাবে বুঝবেন যে আপনার মন খারাপ হয়েছে নাকি আপনি বিষণ্ণতায় ভুগছেন? পার্থক্যগুলো জেনে নিন-

১. মন খারাপ হওয়ার পেছনে সবসময় একটি যথাযথ কারণ থাকে। অফিসে আপনার বস হয়তো আপনার সঙ্গে খুব খারাপ আচরণ করেছে কিংবা আপনার খুব কাছের বন্ধু আপনাকে এমন কিছু বলেছে, যা আপনি তার কাছ থেকে কখনো আশা করেননি। এসব কারণে আপনার মন খারাপ হতেই পারে। তবে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে তা কেটেও যায়। আপনি আবার আপনার স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসেন।

কিন্তু যদি আপনার এ মন খারাপ বা বিষণ্ণ ভাব না কাটে, দিন দিন বাড়তেই থাকে তার মানে আপনি বিষণ্ণতায় ভুগছেন। বিমর্ষতা যখন আপনার মানসিক অবস্থার ওপর প্রভাব ফেলে তখন বিষণ্ণতা আপনাকে গ্রাস করে, আপনার জীবনকে বিষিয়ে তোলে। এটি আপনার কাজ ও ঘুমের সময়সূচিতেও নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। এছাড়া, যেসব কাজ করতে আপনি পছন্দ করেন সেগুলোও করতে ইচ্ছে করে না।

উল্লিখিত এ লক্ষণগুলো যদি আপনার মধ্যে দুই সপ্তাহের বেশি সময় ধরে দেখা যায়, তাহলে বুঝতে হবে আপনি বিষণ্ণতায় ভুগছেন।

২. বিমর্ষতা কয়েক দিন, কখনো কখনো সপ্তাহখানেক স্থায়ী হতে পারে। বিমর্ষতা দৈনন্দিন কর্মকাণ্ড ও ঘুমে তেমন একটা প্রভাব ফেলেনা (যদিও কখনো কখনো খুব ভালো ঘুম হয় না)।

অন্যদিকে, বিষণ্ণতা দৈনন্দিন কর্মকাণ্ডে প্রভাব ফেলে। বিষণ্ণতার কারণে আপনার ঘুমানোর ধরন ১৮০ ডিগ্রি অ্যাঙ্গেলে ঘুরে যাবে। আপনি আগের চেয়ে অনেক বেশি ঘুমাবেন নয় তো নিদ্রাহীন কাটবে সময়। খাওয়া দাওয়ার বিষয়টিও একই। হয় তো আপনি অতিরিক্ত খাবেন নয় তো একেবারেই খেতে পারবেন না।

৩. নির্দিষ্ট কিছু ঘটনায় মন খারাপ হয়। এসব ঘটনা আপনার মনকে বারবার খারাপ করে দিতে পারে। যেমন – কাছের কারো মৃত্যু। যখনই  আপনার এ ঘটনার কথা মনে পড়বে আপনার মন খারাপ হবে, চোখ ফেটে জল আসবে।

অন্যদিকে, আপনি যখন বিষণ্ণতায় ভুগবেন চারপাশের সবকিছুই নেতিবাচক মনে হবে। আপনার প্রতিক্রিয়া নির্দিষ্ট কোনো বিষয় বা ঘটনায় সীমাবদ্ধ থাকবে না। সবসময়ই বিষণ্ণ বোধ করবেন।

 

অনুবাদ করেছেন: আছিয়া নিশি

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

https://timesofindia.indiatimes.com/life-style/health-fitness/de-stress/are-you-depressed-or-really-sad-heres-the-difference/articleshow/66431598.cms?fbclid=IwAR3zoERbNa_Zmz-Z_8htIpz3DYncSxSEJfbOKYciNmzShCr5GZoivCiNsYw