মূল পাতা / ফিচার / মেয়েদের তুলনায় ছেলেরা কম আবেগপ্রবণ

মেয়েদের তুলনায় ছেলেরা কম আবেগপ্রবণ

তুলনামূলকভাবে ছেলেরা চঞ্চল প্রকৃতির। আর মেয়েরা হয় লাজুক, কিন্তু আবেগপ্রবণ। এক্ষেত্রে মেয়েদের তুলনায় ছেলেদের আবেগও অনেক কম। অর্থাৎ ছোট-খাট বিষয়ে মেয়েরা আবেগপ্রবণতা দেখালেও বাস্তববাদী ছেলেরা থাকে শক্ত।

কী কারণে এমন তারতম্য? গবেষণা বলছে, মস্তিষ্কের গঠন। ছেলেদের মস্তিষ্কের গঠনেই নাকি আবেগহীনতার বৈশিষ্ট্য দেখা যায়। গবেষদের মতে, উদাসীন ও আবেগহীন ছেলেদের মস্তিষ্কে এমন গঠনগত পার্থক্য থাকে, যা বিচারবোধ ও সহমর্মিতার সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত।

সম্প্রতি সুইজারল্যান্ডের বাসেল বিশ্ববিদ্যালয় ও বাসেল সাইকিয়াট্রিক হসপিটালের গবেষকরা ১৮৯ কিশোর-কিশোরীর মস্তিষ্কের উন্নয়ন প্রক্রিয়া নিয়ে সমীক্ষা চালিয়ে এ কথা বলেন।

গবেষকরা বলেন, স্বভাবিকভাবে বাড়ন্ত ছেলেদের মস্তিষ্কে স্নায়ুকোষ অঞ্চল ‘গ্রে ম্যাটার ভলিউম’ (জিএমভি) অনেক বড় হয়। জিএমভি’র মধ্যে অনুভূতি, সিদ্ধান্ত গ্রহণ, স্মৃতি, সহমর্মিতা, সংবেদনশীলতা ও আত্মনিয়ন্ত্রণ অন্তর্ভূক্ত। ফলে ছেলেদের মধ্যে সহানুভূতি, অনুতাপ বা অপরাধবোধের অভাব দেখা যায়। অন্যদিকে, মেয়েদের মস্তিষ্কের গঠনে জিএমভি ছোট হওয়ায় তাদের আবেগ নিয়ন্ত্রণের ক্ষমতা কম থাকে।

বাসেল বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণা লেখক মারিয়া রাশেল বলেন, ক্লিনিক্যালি নির্ণয় ছাড়াই আমাদের গবেষণা প্রমাণ করে যে, স্বাভাবিকভাবে বাড়ন্ত ছেলেদের মস্তিষ্কের গঠনে ভিন্নতার কারণেই তাদের মধ্যে উদাসীনতা ও আবেগশূন্য ভাব দেখা যায়। অপরদিকে মেয়েদের মধ্যে দেখা যায় আবেগপ্রবণতা।