কারো বিপদে কি করবেন!

খুব কাছের কারো বিপদ ? কি করবেন তখন, যখন আপনি নিজেই জানেননা যে আপনার আসলে কি করা উচিত

আপনজনদের বিপদে যখন নিজেকে খুব অসহায় মনে হয়, যদি আপনি বুঝে উঠতে না পারেন  আপনার ঠিক কি করা উচিত, এমন অবস্থায় কিভাবে নিজের কাছের মানুষদের সাহায্য করবেন? আসুন বোঝার চেষ্টা করি।

বিপদ কখনোই বলে কয়ে আসবেনা। আপনার বন্ধু কিংবা কাছের কেউ কখনো আপনাকে তাদের অসুস্থতার আগাম সতর্কবাণী কিংবা আপনার কর্তব্য কি হবে সেসব বলে দেবেনা। বাস্তবে কখনোই এগুলো হওয়া সম্ভব নয়।

হয়তো কোন একদিন শুনলেন আপনার কোন বন্ধু খুব বিপদে পড়েছে এবং তার আপনার সাহায্যের প্রয়োজন। হতেই পারে আপনি সে সময়ে বুঝে উঠতে পারলেননা যে আপনাকে ঠিক কি করতে হবে বা কি বলতে হবে। এরকম অবস্থার সম্মুখীন আমরা প্রায়শই হই।

বাস্তব জীবনকে অংক কষে সাজান যায় না। আমরা কখনোই এটা নিশ্চিত ভাবে বলতে পারিনা যে কাল কি হবে, ঠিক কখন আমরা বিপদে পড়ব। ভবিষ্যৎ বিপদের জন্য কেউ ই আগাম প্রস্তুতি নিয়ে রাখেনা। কিন্তু কিছু বিষয়ের দিকে নজর দিলে হঠাত আসা এই বিপদের মোকাবেলা আমরা ধৈর্য  সহকারে করতে পারব এবং আমাদের কাছের মানুষদের সামলে নিতে পারব।

১) ধৈর্য ধারণ করুন এবং নিজের আবেগকে সামলে রাখুনঃ আমাদের বন্ধু, আত্মীয়স্বজন কেউ অসুস্থ হলে আমরা চেষ্টা করি যে কিভাবে তাদেরকে বিপদ মুক্ত করা যায়। আমরা যেন তাদের বিপদকে ঠিক নিজেদের বিপদ ই মনে করি এবং শুধুমাত্র নিজেদের মত করেই এর হাল খোঁজার চেষ্টা করি। এটা একদম ই উচিত নয়। এই সময়ে আমাদের উচিত সর্বপ্রথম আক্রান্ত্র ব্যক্তির কথা শোনা। তিনি কি চান, তার সমস্যা গুলো কি কি এসব বেপার ধৈর্য সহকারে নিজের আবেগকে নিয়ন্ত্রণ করে সর্ব প্রথম জেনে নিতে হবে। তারপর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

২) মনকে অন্য দিকে ব্যস্ত রাখুনঃ সব সময় বিপদ আপদের কথা না ভেবে অন্য দিকে মনোনিবেশ করার চেষ্টা করুন। হাসিঠাট্টার মাধ্যমে গম্ভীর পরিবেশটি একটু হালকা করার চেষ্টা করুন। এতে আপনার এবং অন্য সবার মন ভাল থাকবে।

৩) তাদের পাশে থাকুনঃ সব সময় তাদের কাছে থাকার চেষ্টা করুন। আপনি যদি এর বেশি কিছু করতে নাও পারেন, তবু পাশে থেকে তাদের মণবল বাড়িয়েও আপনি বিশেষ ভূমিকা পালন করতে পারেন।

৪)  সরাসরি কথা বলুনঃ বিপদের সময়ে খুব ভদ্রতা করে কিংবা ঘুরিয়ে কিছু বলা থেকে বিরত থাকুন। যেমন, কাউকে সে কিছু খাবে কি না সেটি জিজ্ঞাসা করার বদলে বরং তাকে সরাসরি খেতে বলতে পারেন। এতে পরিস্থিতি দ্রুত স্বাভাবিক হয়।

৫) সবার সাথে সাথে নিজের ও খেয়াল রাখুনঃ আপনাকে অবশ্যই আপনার কাছের মানুষদের খেয়াল রাখতে হবে। কিন্তু একই সাথে নিজের কথা ভুলে গেলেও চলবেনা। নিজের যত্ন নিন যেন আপনি নিজে সুস্থ থেকে তাদেরকেও সুস্থ রাখতে পারেন।

বিপদ কখনোই বলে কয়ে আসবেনা। এই অযাচিত এবং হঠাত উপস্থিত হওয়া বিপদে নিজেকে খুব অসহায় মনে হলেও উপর্যুক্ত বিষয়গুলো মাথায় রেখে মনে মনে নিজেকে সব পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুত রাখতে হবে।

সূত্র: সাইকোলজি টুডে https://www.psychologytoday.com/us/blog/buzz/201909/friends-in-crisiswhat-do-when-you-don-t-know-what-do

অনুবাদ করেছেন: প্রত্যাশা বিশ্বাস প্রজ্ঞা