মূল পাতা / জীবনাচরণ / ডিপ্রেশন কাটিয়ে আত্মবিশাস বাড়ানোর কৌশল

ডিপ্রেশন কাটিয়ে আত্মবিশাস বাড়ানোর কৌশল

সবকিছুতেই ভয় পেতে থাকলেই কোনো কাজেই সফলতা পাওয়া যায় না। বরং ক্ষেত্র বিশেষ নিজেকে ছোট করা হয়ে থাকে অজান্তেই। মনের ভেতর ভয় রেখে কোনো কাজ করলে তার ফলাফল সব সময় খারাপ হয়। হতে পারে পারিপার্শ্বিক কোনো কারণে আপনি হয়তো নার্ভাস। তবে এই সমস্যাটি যেহেতু কোন কাজে ভালো ফল দেবে না তাই নার্ভাসনেস দূর করার উপায় খুঁজে বের করার কৌশল আয়ত্ত্বে রাখলে সহজেই এটি কাটিয়ে উঠবেন। সকল ধরনের ভয়ভীতি, দুশ্চিন্তা, হতাশা থেকে বের হওয়ার জন্য নিচের কৌশলগুলো জেনে নিন।

বাস্তবতাকে উপলব্ধি করতে শিখুন: জীবন সবসময় একই ধরনের থাকে না। চলার পথে নানা কারণে অনেক প্রতিবন্ধকতার সম্মুখীন হতে হয়। বাস্তবতাকে উপলব্ধি করে সেটি মেনে নিয়ে জীবন অতিবাহিত করতে হয়। সে সময় মনের আতংক দূর করার উপায়গুলো খুজে বের করে জীবনকে নতুনভাবে সাজিয়ে নিন।
নিজেকে আত্মবিশ্বাসী হিসেবে গড়ে তুলুন: সকল চাহিদা পূরণ হবে না। চাহিদার অপূর্ণতায় কখনও মনোবল দুর্বল হয়ে যায়। হতাশাকে দূরে সরিয়ে নিজের ভিতর আত্মবিশ্বাস সঞ্চয় করার প্রচেষ্টা চালান। আপনার মনোবল যদি ঠিকমত ধরে না রাখতে পারেন তাহলে সকলকিছুতে দুর্বল হয়ে যাবেন। মানসিকভাবেও অনেক বিপর্যস্ত হয়ে পড়বেন। নিজের মধ্যে থাকা সকল বিষন্নতাকে বিদায় দিয়ে মনোবল শক্ত করে নিজের আত্মবিশ্বাস ঠিক রাখুন।
সৃষ্টিকর্তাকে বেশি বেশি স্মরণ করুন: মৃত্যু ভয়, পারিবারিক অশান্তি, ব্যর্থতার ভয় এরকম অনেক কিছুই হতাশা সৃষ্টি করে। তাছাড়া শয়তানও বিভিন্নভাবে আপনাকে অপদস্থ করে বসে। সকল দুশ্চিন্তা দূর করার দোয়াগুলো বেশি বেশি করে পড়ুন। আশেপাশের দুর্বল মানুষের দিকে তাকিয়ে সৃষ্টিকর্তার নিকট শুকরিয়া আদায় করুন।
মনের অনুভূতিগুলো গুছিয়ে রাখুন: মানসিক বিপর্যস্তা দূর করতে নিজের অনুভুতিগুলোকে গুছিয়ে রাখুন। যেকোন সমস্যা
থেকে বের হয়ে আসতে মেডিটেশন করতে পারেন। ভূল থেকে শিক্ষা নিয়ে নতুন করে স্বপ্ন দেখুন কিভাবে এই অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসা যায়। ঠিকই একসময় সঠিক রাস্তা পেয়ে যাবেন।
অতীতের দুর্বলতাগুলো ভূলে যাওয়ার চেষ্টা করুন: অতীতে আপনার সাথে ঘটে যাওয়া বাজে কোন স্মৃতিকে আকড়ে ধরে রাখার চেষ্টা করবেন না। মনের অস্তিরতা দূর করার ঔষধ হিসেবে অতীতের হতাশাজনক কাজগুলোকে ভূলে যাওয়াকে প্রথমেই বিবেচনা করা হয়। অতীতকে বিদায় দিয়ে বর্তমানকে সুন্দর করে সাজিয়ে নিন।
ইতিবাচক চিন্তা করুন: কোনো কাজে নিজের উপর নিজে ভরসা করতে না পারলে ব্যর্থতা পিছু ছাড়বে না। সবসময় ইতিবাচক চিন্তা করুন তাহলে অন্যান্য মানুষও আপনাকে ইতিবাচক চিন্তা করবে। নিজের মধ্যে ইতিবাচক সকল কিছুর প্রয়োগ ঘটাতে পারলে সকল স্থানেই সফল হবেন। সকলধরনের নার্ভাসনেস কমানোর উপায় হিসেবে সবসময় নিজেকে সুখি অনুভব করুন।