মূল পাতা / জীবনাচরণ / উদ্বেগ ও মানসিক চাপ সামলাতে যা খেতে পারেন

উদ্বেগ ও মানসিক চাপ সামলাতে যা খেতে পারেন

প্রতিদিনের কর্ম ব্যস্ততায় আমরা সবাই কমবেশি উদ্বেগ আর মানসিক চাপের মধ্যে থাকি। একবিংশ শতাব্দীর এই জটিলতর সমাজ ব্যবস্থায় চাইলেও সব অশান্তি, দুশ্চিন্তা, উদ্বেগ আর মানসিক চাপ থেকে নিজেকে শতভাগ মুক্ত করার কোনো পথ নেই। তাই প্রাত্যহিক জীবনে এসব বিষয়গুলি সামলেই আমাদেরকে চলতে হবে।

তবে সুখের কথা হলো প্রকৃতিতে এমন কিছু উপাদান রয়েছে, যা আপনাকে প্রতিদিনের মানসিক চাপ ও উদ্বেগ কাটিয়ে উঠতে সহায়তা করবে। সেগুলিকে খাদ্যাভ্যাসে যুক্ত করার মধ্য দিয়ে খুব সহজেই আপনি এসব ধকল কাটিয়ে উঠতে পারেন।

চলুন জেনে নিই উদ্বেগ ও মানসিক চাপ সামলে নিতে যা খাওয়া প্রয়োজন-

আদা
আদা আমাদের সবারই অতি পরিচিত একটি মসলা, মাছ কিংবা মাংস রান্নায় এর ব্যবহার রয়েছে। তবে, আদা-চা আমাদের কাছে সব থেকে বেশি পরিচিত। আদায় প্রায় ১৪টি বায়োঅ্যাক্টিভ উপাদান ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে। গবেষণায় দেখা গেছে, আদা আমাদের দেহে সেরোটোনিন নিঃসরণ বাড়িয়ে দেয়ার মধ্য দিয়ে উদ্বেগ কমাতে সাহায্য করে। আদা এক্ষেত্রে এতটাই কার্যকর যে বলা হয়ে থাকে বেনজোডায়াজিপাইন ওষুধের মতোই এটি কাজ করে। উল্লেখ্য, সেরোটোনিনের অভাবে মানসিক অবসাদ দেখা দেয়।

আপেল সিডার ভিনেগার
আপেল সিডার ভিনেগার সরাসরি আপনার রক্তের শর্করাকে প্রভাবিত করে আপনাকে ক্লান্তি থেকে রক্ষা করে এবং উদ্যম বাড়িয়ে দেয়। এছাড়াও এটি পটাশিয়ামের মতো প্রয়োজনীয় খনিজ উপাদানে সমৃদ্ধ, যা আপনার উদ্যম বাড়িয়ে তুলতে প্রত্যক্ষ অবদান রাখে। ফলে মানসিক অবসাদ ও ক্লান্তি দূর করতে এটি বেশ কার্যকরী।

হলুদ
ইন্টারনেট জুড়ে হলুদের নানা গুণকীর্তনের ছড়াছড়ি। এসব কি শুধুই গুজব নাকি বিজ্ঞান হলুদের এসব গুণাগুণ স্বীকার করে নেয়? বিখ্যাত আমেরিকান চিকিৎসা বিষয়ক জার্নাল পাবমেড’এ প্রকাশিত গবেষণার ফলাফল বলছে, হলুদ যে শুধু জনপ্রিয় তাই নয় বরং স্বাস্থ্যের জন্যেও এটি খুব উপকারী, বিশেষ করে মানসিক স্বাস্থ্যের জন্য।

হলুদে বিদ্যমান বায়োঅ্যাক্টিভ উপাদান, কারকিউমিন, সরাসরি উদ্বেগ কম করার সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত। তাছাড়া এটি সেরোটোনিন ও ডোপামিনের পরিমাণ বৃদ্ধি করে মানসিক অবসাদ দূর করতে সাহায্য করে। হলুদ এতটাই কার্যকর যে প্রোজাক নামক অবসাদ নাশক ওষুধের সঙ্গে একে তুলনা করা চলে।

কুমড়ো বীজ ও কলা
কুমড়ো বীজ ও কলায় প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম রয়েছে। যা আমাদের দেহের ইলেক্ট্রলাইট নামক উপাদানটির ভারসাম্য আনার মধ্য দিয়ে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে।

কলা ও কুমড়ো বীজের মতো পটাশিয়াম সমৃদ্ধ খাদ্য মানসিক চাপ ও উদ্বেগের উপসর্গগুলি দূর করতে সহায়ক। এছাড়াও কুমড়ো বীজে প্রচুর জিঙ্ক বিদ্যমান, জিঙ্ক আমাদের মস্তিষ্ক ও নার্ভ সুস্থ রাখে।

অশ্বগন্ধা
যদি আপনি অ্যাডাপ্টোজেন সম্পর্কে না জেনে থাকেন, তাহলে আপনার অবশ্যই তা জানা উচিৎ। এটি এমন প্রাকৃতিক জিনিস, যা আপনাকে মানসিক চাপ বা স্ট্রেস কমাতে সাহায্য করে।

অশ্বগন্ধা একটি প্রসিদ্ধ অ্যাডাপ্টোজেন। স্ট্রেসবিরোধী লড়াইয়ে ভেষজ হিসেবে অশ্বগন্ধা খুবই জনপ্রিয়। এটি মানসিক চাপ, উদ্বেগ, ক্লান্তি, অবসাদ প্রভৃতি নিরাময়ে ও কর্টিজল পরিমাণ বৃদ্ধিতে সহায়ক।

তথ্যসূত্র: হেলথলাইনডটকম