মূল পাতা / সংবাদ / জাতীয় / জেনে নিন বিএসএমএমইউর মনোরোগবিদ্যা বিভাগের চিকিৎসা সেবা

জেনে নিন বিএসএমএমইউর মনোরোগবিদ্যা বিভাগের চিকিৎসা সেবা

মনের খবর.কমের পাঠকদের জন্য থাকছে দেশের মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় ও মেডিকেল কলেজের মনোরোগ বিভাগের বিস্তারিত তথ্য। টেবিলে বিভাগের লোকবল, সেবা ইত্যাদি সংবলিত প্রয়োজনীয় বিভিন্ন তথ্য থাকবে। ধারাবাহিক প্রতিবেদনের আজকের পর্বে থাকছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) মনোরোগবিদ্যা বিভাগ।

প্রতিষ্ঠার পর থেকে দেশের চিকিৎসা খাতে অনন্য অবদান রেখে আসছে দেশের একমাত্র ও প্রথম মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়। এ প্রতিষ্ঠানের অন্যতম বিভাগ মনোরোগ বিদ্যা। এ বিভাগের আওতায় স্বল্প খরচে পাওয়া যায় বিভিন্ন মানসিক রোগের মানসম্মত চিকিৎসা। বহিবির্ভাগ ও অন্তর্বিভাগের পাশাপাশি বিভাগের বিশেষ ক্লিনিকে চিকিৎসা সেবা দেন বিশেষজ্ঞরা।

bsmmu1

নিচে বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোরোগবিদ্যা বিভাগের পরিচিতিসহ চিকিৎসা সেবা সংক্রান্ত বিভিন্ন তথ্য তুলে ধরা হলো:

পরিচিতি
রাজধানীর শাহবাগে অবস্থিত দেশের প্রথম ও একমাত্র মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়-বিএসএমএমইউ (পিজি হাসপাতাল নামেও পরিচিত)।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ১০টি অনুষদের একটি মেডিসিন। এ অনুষদের অন্তর্ভুক্ত ১৯টি বিভাগের অন্যতম একটি বিভাগ হচ্ছে মনোরোগবিদ্যা বিভাগ। হাসপাতালের ডি ব্লকের ১২ তলায় এ বিভাগের অবস্থান।

চিকিৎসা সেবা
বিএসএমএমইউ এ সকল বয়সের মানসিক রোগীদের চিকিৎসা সেবা দেয়া হয়। সরকারি প্রতিষ্ঠান হওয়ায় স্বল্প খরচে বিভিন্ন প্রকার রোগ যেমন- ড্রাগ এডিকশন, ডিপ্রেশন, বাইপোলার মুড ডিজর্ডার, সিজোফ্রেনিয়া, ডিলিউশনাল ডিজর্ডার, সোমাটোফর্ম ডিজর্ডার, পারসনালিটি ডিজর্ডার, যৌন সংক্রান্ত ডিজর্ডার, অপজিশনাল ডিফাইন ডিজর্ডার, কনভার্সন ডিজর্ডার, নারীদের গর্ভকালীন, বা আগে-পরের মানসিক অবস্থা সংক্রান্ত রোগ, শিশুদের ক্ষেত্রে মেন্টাল রিটায়ারডেশন, ম্যানিয়া, অটিজম, বয়স্কদের ক্ষেত্রে তাদের আচরণগত সমস্যা, ডিমেন্টিয়া/ডিউরেশনাল, ওল্ড এজ ডিপ্রেশন সহ সব ধরনের মানসিক রোগের মানসম্মত চিকিৎসা মেলে।

মনোরোগ বিদ্যা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. নাহিদ মেহজাবিন মোর্শেদ জানান, এখানে শিশু, কিশোর-কিশোরী, বয়স্ক, পূর্ণ বয়স্ক সকল বয়সের মানসিক রোগীদের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করা হয়। শুধু তাই নয়, হাসপাতালের অন্য বিভাগ থেকে রেফার করা রোগীদেরও চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয় এবং দেশের কেন্দ্রীয় কারাগারে মানসিক রোগে ভুগছে-এমন আসামিদের পাঠালে তাদেরও সেবা দেয়া হয়।

বিএসএমএমইউ-এ মানসিক রোগীদের জন্য তিন ধরনের সেবা রয়েছে। অন্তর্বিভাগ, বহির্বিভাগ ও বিশেষ সেবা।

বহির্বিভাগ সেবা
বহির্বিভাগে মাত্র ৩০ টাকার টিকিটে সকাল ৮ টা থেকে ২.৩০ মিনিট পর্যন্ত রোগীদের দেখা হয়। বিকেল ৩টা থেকে মাত্র ২শ টাকায় মানসিক রোগীদের জন্য একটি বিশেষ সেবার ব্যবস্থা রয়েছে।

শুক্র  এবং সরকারি ছুটির দিন ব্যতিত অন্যান্য দিন বহির্বিভাগ খোলা থাকে।

অন্তর্বিভাগ
মনোরোগবিদ্যা বিভাগে রোগীদের জন্য মোট ৪০ বেড রয়েছে। ২০টি পুরুষ ও ২০টি নারীদের জন্য। বহির্বিভাগ থেকে রেফার করার রোগীরা নির্দিষ্ট ফি দিয়ে অন্তর্বিভাগে ভর্তি হতে পারেন।

সাইকোথেরাপি  (কাউন্সিলিং)
এখানে বিশেষভাবে সাইকোথেরাপি দেয়া হয়। প্রতি সোমবার সাইকোথেরাপি শুরু বা ইনটেক সেশন হয়। সাইকোথেরাপি দরকার এমন যেকোনো মানসিক রোগে আক্রান্তদের স্বতন্ত্রভাবে বা গ্রুপে থেরাপি দেয়া হয়। এক সেশনের জন্য ফি তিনশ টাকা।

বিভাগের তিনটি উইং মানসিক রোগীদের চিকিৎসা নিশ্চিত করতে কাজ করে। এসব উইং হচ্ছে- এডাল্ট সাইকিয়াট্রি উইং, চাইল্ড অ্যান্ড অ্যাডোলেসেন্ট ও সাইকোথেরাপি উইং।

বিশেষ ক্লিনিক
বর্তমানে মনোরোগবিদ্যা বিভাগে একটি বিশেষ ক্লিনিক চালু রয়েছে। এটি হচ্ছে ‘সাইকিয়াট্রি সেক্স ক্লিনিক’। এ ক্লিনিকে যৌন আগ্রহজনিত সমস্যা, যৌন উত্তেজনাজনিত সমস্যা, যৌনানুভূতি সংক্রান্ত সমস্যা, যৌনকালীন স্থায়িত্বের সমস্যা, যৌনকালীন সময়ে ব্যথা, স্বাভাবিক বা অস্বাভাবিক যৌন আকর্ষণজনিত সমস্যাসহ যেকোনো যৌন সমস্যা নিরাময়ে চিকিৎসা ও পরামর্শ দেয়া হয়।

এটি ছাড়াও শিগগিরই আরও ৪টি বিশেষ ক্লিনিক যোগ হতে যাচ্ছে এ বিভাগের আওতায়। এসব ক্লিনিক হচ্ছে- ফার্স্ট এপিসোড সাইকোসিস ক্লিনিক, এডিএইচডি ক্লিনিক, সুইসাইড প্রিভেনশন ক্লিনিক ও ড্রাগ এডিকশন প্রিভেনশন ক্লিনিক।

জনবল
মনোরোগবিদ্যা বিভাগে রয়েছেন ১০ জন শিক্ষক ও মনোরোগ বিশেষজ্ঞ। এছাড়াও বিভাগে রয়েছেন ১২ জন মেডিকেল অফিসার ও ৫ জন স্টাফ। শিক্ষক ও মনোরোগ বিশেষজ্ঞ ছাড়াও অধ্যয়নরত ৩০ জন্য আবাসিক শিক্ষার্থী।

BSMMU

মো. জাহিদ হাসান,
মনের খবর প্রতিবেদক