মানসিক সুস্থতা

মানসিক সুস্থতার জন্য দৈনন্দিন করণীয়

মানসিক রোগাক্রান্ত হওয়ার আগে আমাদের মধ্যে মানসিক সুস্থতা বিষয়ে সচেতনতা খুব কমই কাজ করে। যখন আমরা দৈনন্দিন কাজকর্মের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে পারি না কিংবা মানসিক চাপ ও হতাশার মধ্যদিয়ে সময় অতিবাহিত করি তখন আমাদের কাছে মনে হয় ‘কিছু একটা হয়েছে’।

মানসিক সুস্থতার জন্য মানসিক স্বাস্থ্য সম্পর্কে সর্বদা সচেতন থাকা অত্যন্ত জরুরি। মানসিক সমস্যা ক্ষুদ্র হলেও সচেতন না থাকলে পরবর্তীতে বড় সমস্যার কারণ হতে পারে সেদিকে আমাদের লক্ষ্য রাখতে হবে। সেজন্যে আমাদের লক্ষ্য হতে হবে মানসিক রোগে আক্রান্ত হওয়ার আগেই সচেতন হওয়া এবং দৈনন্দিন সুস্থ থাকার উপায়গুলো জেনে নেয়া। এক্ষেত্রে যে বিষয়গুলো আমলে আনা জরুরি-

পরিবর্তন অবশ্যম্ভাবী কথাটি মনে রাখা

মানুষের জীবনে উত্থান-পতন থাকবেই। এ পরিবর্তনকে মেনে নেয়া ব্যক্তিজীবনে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। অনেক সময় কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্য অর্জন করতে গিয়ে সফল না হওয়া, ব্যবসায় ক্ষতিগ্রস্থ হওয়া কিংবা সম্পর্কের অবনতি হওয়ার ফলে আমাদের মনোবল ভেঙ্গে যায়। বাস্তবতাকে আমাদের অবশ্যই মেনে নিতে হবে। তাই এসময় নিজেকে নিয়ন্ত্রন করতে হবে এবং স্বাভাবিক জীবনযাপনে মনোনিবেশ করতে হবে।

ভাগ্যকে মেনে নেয়া

নিজের ভবিষ্যত, ভাগ্য কিংবা কাজের ফলাফলের উপর ব্যক্তির কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। প্রতিটি ব্যক্তিই চায় তার জীবন মধুর হোক বা শুধু ইতিবাচক ঘটনা ঘটুক। বাস্তবে দেখা যায় জীবনে সুখ যেমন আসে তেমনি হতাশাও অনেক সময় কাজ করে। তখন আমাদের উচিত হতাশ না হয়ে বরং উত্তরণের পথ অনুসন্ধান করা।

অন্যের আচরণ সহ্য করার ক্ষমতা ও মানসিকতা

জীবনে চলার পথে বন্ধুর আগমন চিরন্তন। বন্ধুর কাছ থেকে সব সময় ভালো কিছু আশা করলেও অনেক সময় তার ব্যাত্যয় ঘটতে পারে। সেক্ষেত্রে যতদূর সম্ভব বন্ধুকে ছাড় দেয়ার মানসিকতায় অভ্যস্ত হতে হবে। কোন আচরণগুলো আপনার ভালো লাগে না কিংবা কষ্ট দেয় তা বন্ধুকে ভদ্রতার সাথে বুঝিয়ে দিতে হবে।

নিজের অনুভূতিতে সাড়া দেয়া এবং অবশ্যম্ভাবী বিষয়গুলো মেনে নেয়া

মানসিক সুস্থতার জন্য আপন মনের অনুভূতি ও চিন্তাকে প্রাধান্য দিতে হবে। মানসিক সুস্থতার জন্য রাগ নিয়ন্ত্রণ করা জরুরি। ভালো-মন্দ যাই হোক না কেন তার সাথে নিজেকে সহজে মানিয়ে নিতে হবে। জীবনে কখনও সুখ আসবে আবার কখনো দূ:খ। দূ:খের সময় ভেঙ্গে না পড়ে বরং ঠান্ডা মাথায় তা সামলাতে হবে। কারণ সুখ হোক আর দূ:খ হোক সবই জীবনের জন্য এবং তা এড়িয়ে যাওয়ার কোনো সুযোগ নেই।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

ফারুক হোসেন, আন্তর্জাতিক ডেস্ক
মনেরখবর.কম