প্রাথমিক বিদ্যালয় হতে পারে শিশুদের মানসিক সুস্থতা শিক্ষা দেয়ার কেন্দ্রস্থল 1

প্রাথমিক বিদ্যালয় হতে পারে শিশুদের মানসিক সুস্থতা শিক্ষা দেয়ার কেন্দ্রস্থল

গবেষকরা বলছেন,” আমাদের শিশুদের মস্তিষ্ককে এমনভাবে তৈরি করা উচিৎ যাতে হতাশা ও বিপর্যস্ততার সময়েও তারা নিজেদের সঠিক নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারে। আমাদের যেমন নিজের মানসিক স্বাস্থ্যের দিকে নজর দেয়া উচিৎ তেমনি নজর দেয়া উচিৎ আমাদের শিশুদের উপর। তারা কিভাবে নিজের আবেগ ও বিশ্বাসকে নিয়ন্ত্রণ করছে এটা দেখা জরুরি।

গত অক্টোবরে Belfast এ হয়ে যাওয়া Public Health Open Conference এ প্রফেসর Deirdre Heenan আমাদের পারিবারিক মানসিক স্বাস্থ্যের প্রতি গুরুত্ব দিতে বলেন। School of Social Policy at Ulster University এর প্রফেসর Heenan এবং Prof Siobhan O’Neill, from the School of Psychology at Ulster University বলেছেন যে, শিশুদের মানসিক ভাবে সুস্থ থাকার শিক্ষা দেয়ার আদর্শ জায়গা হলো স্কুল। Heenan বলেন,” স্কুলগুলো হলো আমাদের সমাজ, শিশু, অভিভাবকদের সকল সাহায্যের কেন্দ্র। “শিশুরা প্রতিদিন ৬ ঘণ্টা বা তার বেশি স্কুলে অবস্থান করে। তাই মানসিক সুস্থতা শিক্ষা দেয়ার কাজটা এখানেই করা যেতে পারে।”

O’Neill এর মতে এখনো অনেক ছাত্রই তাদের আবেগ সম্পর্কে ঠিকমতো বুঝতে পারে না। তিনি বললেন, “আমি ৩০ বছর বয়সে বুঝেছি কিভাবে আবেগকে নিয়ন্ত্রণ করতে হয়। এখনো অনেক উচ্চমাধ্যমিক স্তরের শিক্ষার্থী আসলে তাদের আবেগ সম্পর্কে ঠিকমতো বুঝতেই পারে না।” তিনি বিশ্বাস করেম যে, আমরা এখনো শিশুদের অনুভুতি ও আচরণকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারি।

Heenan এর মতে, স্কুলে মানসিকভাবে সুস্থ থাকার যেসকল পদ্ধতি আছে তার একটি লম্বা তালিকা স্কুলগুলোতে দেয়া উচিৎ তিনি বলেন, ” আমাদের স্কুলগুলোর কেবল একাডেমিক শিক্ষার সংস্কৃতি বদলাতে হবে। মানসিক স্বাস্থ্য সচেতনতা শিক্ষা সকল ক্লাসের জন্য আবশ্যক করা উচিৎ। শিক্ষার পাশাপাশি স্কুলগুলোতে শিশুদের মানসিক সহায়ক পরিবেশ তৈরি করে দেয়া উচিৎ।” তিনি নিজেও এরকম একটি মডেল স্কুল তৈরির পরিকল্পনা করেছেন।

O’Neill বলেছেন যে, আত্মহত্যার মত বিষয়গুলো কেবলমাত্র তরুণ বয়সে এসে আলোচনা করা হয়। “কিন্তু তখন বেশ দেরি হয়ে যায়। কারণ এরকম মানসিকতা অনেক আগে থেকেই তৈরী হয়ে যায়।” বলেছেন O’Neill যিনি একজন suicidologist। শিশুদের তাই স্কুলপর্যায় থেকেই উৎফু্ল্ল ও দুশ্চিন্তামুক্ত থাকার শিক্ষা দিতে হবে, সম্পর্কের ব্যবস্থাপনা শেখাতে হবে, কিভাবে দুশ্চিন্তা ও মানসিক বিপর্যয়কে নিয়ন্ত্রণ করতে হয় তা শেখাতে হবে। আর স্কুলপর্যায়ে একজন শিক্ষকের মাধ্যমেই তা করা যায়। এসব না শেখালে স্কুল পর্যায়ের পর একটি মেয়ে শিশুর মাঝে নানান ভিতি তৈরি হয় আর ছেলে শিশুরা করতে পারে নানান অকাম্য আচরণ।

শিশুকাল থেকে এই শিক্ষা দিলে তারা আর নিজেদের ক্ষতি করে এমন রাস্তায় যেতে পারে না। তাই প্রাথমিক বিদ্যালয় হতে পারে শিশুদের মানসিক সুস্থতা শিক্ষা দেয়ার কেন্দ্রস্থল।

তথ্যসূত্র- আইরিশ টাইমস
http://www.irishtimes.com/life-and-style/health-family/tackling-children-s-mental-health-issues-in-schools-1.2828605

আব্দুল্লাহ আল মামুন, আন্তর্জাতিক ডেস্ক
মনেরখবর.কম