১০ শতাংশ ভারতীয় মানসিক সমস্যায় আক্রান্ত 1

১০ শতাংশ ভারতীয় মানসিক সমস্যায় আক্রান্ত

আতঙ্ক ও দুশ্চিন্তা হলো দুটি অতি প্রধান সমস্যা যা নারী পুরুষ উভয়ের মাঝেই প্রকট। ভারতের প্রায় ১৫০ মিলিয়ন মানুষের মাঝে এরকম সমস্যা রয়েছে। পাশাপাশি আরো অনেক সমস্যা রয়েছে যা তারা স্বীকার করে নেয় না। National Mental Health Survey থেকে করা রিপোর্টে দেখা গেছে, ১৮ বছর বা তার কম বয়সের প্রতি ১০ জনে একজন মানসিক সমস্যায় ভুগছে।

ব্যঙ্গালোর ভিত্তিক National Institute of Mental Health and Neurosciences (NIMHANS) থেকে পরিচালিত একটি জরিপ থেকে এসব তথ্য উঠে আসে। দাবি করা হচ্ছে এটি পৃথিবীর ২য় বৃহত্তম মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক জরীপ।

এই গবেষণা ভারতের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় থেকে অনুমোদিত। সংস্থাটি ভারতের ১২ টি প্রদেশে তাদের এই সমীক্ষা চালিয়েছে এবংএতে ৪০,০০০ ভারতীয় অংশগ্রহণ করেছে। এটি হলো বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক জরিপ।

এই জরীপে দেখা গেছে, ১০% ( প্রায় ১৫০মিলিয়ন) ভারতীয় সাধারণ মানসিক সমস্যায় ভোগে। যেমন বিষণ্নতা, উত্তেজনাজনিত রোগ। ১% ভারতীয়র মাঝে আত্মহত্যারর প্রবণতা বিরাজ করে। ১৮ বছরের কম বয়সীদের ১০ ভাগ মদ্যাপানের সাথে জরিত। সমস্যাগ্রস্তদের ভিতর কেবল ২৫% চিকিৎসা নেয়।

এই গবেষণা দেখিয়ে দেয় যে, বিদ্যমান মানসিক সমস্যার পরেও এর চিকিৎসা কতটা অপর্যাপ্ত। Dr G Gururaj যিনি Centre for Public Health, NIMHANS এর প্রধান বলেছেন, “শহরে মানসিক সমস্যার হার গ্রামের চেয়ে বেশি। অর্থনৈতিক দিক দিয়ে দেখলে নিম্ন আয়ের লোকেরা এবং অশিক্ষিত লোকেরা এই সমস্যায় বেশি ভুগছে।”

Centre for Addiction Medicine at NIMHANS এর প্রধান Dr Vivek Benegal বলেন, “১৮ বছরের কম বয়সীদের ১০% মদ্যপানের ফলে নানান সংক্রামক  সমস্যায় ভুগছে।” তিনি আরো বলেন, “এখানে ২৫% সমস্যাগ্রস্ত চিকিৎসা নেয়। এর কারণ হলো চিকিৎসা সরঞ্জামের অভাব এবং মানসিক সমস্যা নিয়ে লোকদের মাঝে বিদ্যমান অজ্ঞতা।”

এখানে আরো দেখানো হয়েছে, স্নায়ুগত নানান সমস্যা যেমন ফোবিয়া, উত্তেজনার মতো সমস্যাগুলো এখানে সাধারণভাবে বিরাজ করে। এরকম সমস্যার ফলে হাইপারটেনশন, হৃদরোগ, ক্যান্সার সহ নানান রোগ হয়। এই জরীপে এরকম সমস্যার ক্ষেত্রে দ্রুত সচেতনতা তৈরি করার গুরত্ব দেখানো হয়েছে। কেননা নানান কুসংস্কার দূর করতে এটি জরুরি। লোকজনের কর্মক্ষেত্র ও স্কুলগুলোকে  বেশি সজ্জিত ও সমৃদ্ধ করে তাদের একাজে সম্পৃক্ত করতে হবে।

তথ্যসূত্র- এনডিটিভি
(http://everylifecounts.ndtv.com/1-10-indians-mental-health-issues-less-25-getting-treatment-6242)

আব্দুল্লাহ আল মামুন, আন্তর্জাতিক ডেস্ক
মনেরখবর.কম