মূল পাতা / সংবাদ / সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে অতিরিক্ত চিন্তা কমাবেন কীভাবে ?

সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে অতিরিক্ত চিন্তা কমাবেন কীভাবে ?

অতিরিক্ত চিন্তাকারীরা কোনো সিদ্ধান্ত নেবার সময় অনেক বেশি দ্বিধা বোধ করে। কিন্তু সত্যি তো এটাই যে, আপনি কোনো পীড়ন থেকে মুক্তি তখনই পাবেন, যখন আপনি সেই বিষয়ে খুব দ্রুত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারবেন।

কিছু আত্ম-প্রতিফলনমূলক জিজ্ঞাসা নিজেকে করতে পারেন, যেগুলো আপনাকে দ্রুত সিদ্ধান্ত নিতে সহয়তা করবে।

১। মনে করুন যে অতীতে যখন আপনি স্বল্প সময়ে কোনো সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন, তা থেকে আপনি ভালো ফল পেয়েছিলেন। ধরুন, কোনো সময়ে আপনি কোনো একটা জিনিস কেনার ক্ষেত্রে তাড়াতাড়ি সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন এবং পরবর্তীতে সেটা আপনার খুব কাজে লেগেছে বা আপনি কোনো বিষয়ে কাউকে হ্যাঁ বলেছেন এবং তা আপনার জন্য খুব ভালো সময় এনে দিয়েছে।

২। আপনার প্রিয় কোনো দখলকৃত বস্তুর কথা ভাবুন যা আপনি ঝোঁকের বশে নিয়েছিলেন। এটা কিছুটা উপরের কথাটির মতোই, কিন্তু সেটা থেকে কিছুটা আলাদা, যা আপনাকে অতিরিক্ত চিন্তা থেকে মুক্তি দিবে।

৩। দ্রুত সিদ্ধান্ত যেটা আপনাকে ভালো কিছু দেয়নি, কিন্তু সে সিদ্ধান্ত পরে নেওয়ার চেয়ে আগে নেওয়াটা ভালো।
ধরুন, আপনি কারোও সাথে অনেকদিন ধরে যোগাযোগ করার চেষ্টা করছেন কিন্তু সে আপনাকে সময় দিচ্ছে না, অনেকদিন চেষ্টার পর আপনি শেষ পর্যন্ত তাকে পেলেন কিন্তু এই সময়টা আপনাকে অনেক চিন্তার মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে। এরকম না করে আপনি যদি প্রথমেই সিদ্ধান্ত নিতেন যে, আপনি কোনো নির্দিষ্ট সময়ের জন্য তাকে খুঁজবেন, যদি না পান তবে অনেক মাস ধরে তাকে নিয়ে চিন্তা করবেন না।

৪। আপনি ভাবুন আগে যখন সফলতা পেয়েছিলেন তখন আপনি আগে থেকেই ১০০ ভাগ নিশ্চিত ছিলেন না যে আপনার সফলতা আ্সবে।

৫। যদি আপনি কোনো বিষয়ে অতিরিক্ত চিন্তা না করেন, তবে আপনি ঐ সময় ও শক্তিটুকু অন্য কাজে লাগাতে পারেন।
আপনি নিজেকে এই প্রশ্নগুলো করার পাশাপাশি একটা নোটও রাখতে পারেন যে কখন কখন আপনার এই জিনিসগুলো কাজে লেগেছে।
এই প্রশ্নগুলো অবশ্যই তাদের জন্য নয়, যারা সবসময় ঝোঁকের বশে চলে।

তথ্যসূত্র: সাইকোলজি টুডে ডটকমে প্রকাশিত এর রচনা অবলম্বনে লিখেছেন সুস্মিতা বিশ্বাস।
লিংক: https://www.psychologytoday.com/us/blog/in-practice/201804/5-self-reflection-questions-overthinkers?utm_source=FacebookPost&utm_medium=FBPost&utm_campaign=FBPost