মানসিক স্বাস্থ্য সচেতনতায় ক্রিস্টাল অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন দীপিকা পাড়ুকোন

মানসিক স্বাস্থ্য সচেতনতায় ক্রিস্টাল অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন দীপিকা পাড়ুকোন

মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে সচেতনতা প্রসারের জন্য ক্রিস্টাল অ্যাওয়ার্ড (Crystal Award) পেলেন দীপিকা পাড়ুকোন। সুইজারল্যান্ডের দাভোসে ওয়ার্ল্ড ইকনমিক ফোরামের তরফে দীপিকার হাতে এই পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়। পুরস্কার নিতে মঞ্চে উঠেও মানসিক স্বাস্থ্য ও মনরোগ নিয়ে নানান কথা বলেন দীপিকা।

২০১৪ সালে নীরবতা ভেঙে প্রথম মানসিক স্বাস্থ্য ও অবসাদ প্রথম মুখ খোলেন দীপিকা। কথা বলেন তাঁর জীবনে ঘটে যাওয় মানসিক অবসাদের ঘটনা প্রসঙ্গে। এমনকি মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে কাজ করার জন্য দীপিকার নিজেরও একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা রয়েছে, যার নাম  ‘ Live Love Laugh foundation’। ক্রিস্টার পুরস্কার জেতার পর সোশ্যাল মি়ডিয়ায় সেটি পোস্ট করে নিজের সংস্থার সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেলে সেই ছবি ট্যাগ করেন দীপিকা।

এদিন দাভোসের মঞ্চে দীপিকা বলেন ‘আপনি একা নন বহু মানুষ আছেন যাঁরা নিজের মনের সঙ্গে লড়াই করে চলেছেন। এটা বুঝতে হবে যে ভয় এবং মানসিক অবসাদ বর্তমান সময়ের একট গুরুত্বপূর্ণ অসুখ। আর পাঁচটি শারীরিক অসুস্থতার মতোই এরও চিকিৎসার প্রয়োজন। আর সেকথা মাথায় রেখেই তিনি ‘Live Love Laugh’- নামে একটি সংস্থা গড়ে তোলেন। দীপিকার কথায়, বেঁচে থাকা, ভালোবাসা, ও হাসিখুশি থাকা তাঁর জীবনদর্শন। মার্টিন লুথারের একটি কথা টেনে দিপ্পি বলেন, ”এই পৃথিবীতে যা কিছু করা হয় তা আশা নিয়েই করা হয়।”

এদিকে স্ত্রী ক্রিস্টাল অ্যাওয়ার্ড জেতার খবরে খুশি রণবীর সিং। তিনি দীপিকার ছবির নিচে লেখেন, ”অসাধারণ খবর, আমি তোমার জন্য গর্বিত বেবি। এই নীল পোশাকে তোমায় সুন্দর দেখাচ্ছে। অনেক শুভেচ্ছা রইল।”