পরিবেশ দূষণ ও মানসিক রোগ নিয়ে মনের খবর মার্চ সংখ্যা প্রকাশিত

পরিবেশ দূষণ ও মানসিক রোগ নিয়ে মনের খবর মার্চ সংখ্যা প্রকাশিত

মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক দেশের অন্যতম বহুল পঠিত মাসিক ম্যাগাজিন মনের খবর এর মার্চ সংখ্যা বাজারে এসেছে। অন্যান্য সংখ্যার মত এবারের সংখ্যাটিও একটি বিশেষ বিষয়ের উপর প্রাধান্য দিয়ে সাজানো হয়েছে। আর এবারের সংখ্যায় প্রাধান্য পাওয়া বিষয়টি হল- পরিবেশ দূষণ ও মানসিক রোগ। এবারের ম্যাগাজিনে পরিবেশ দূষণ ও মানসিক রোগ বিষয়ক লেখার পাশাপাশি মানসিক স্বাস্থ্য সচেতনতা ও মানসিক স্বাস্থ্যের বিভিন্ন দিক নিয়ে লিখেছেন দেশের খ্যাতনামা মনোরোগ বিশেষজ্ঞগণ।

যা রয়েছে “মনের খবর” মার্চ সংখ্যায়–

“পরিবেশ দূষণ মনের ওপর যেসব প্রভাব ফেলে ”-শিরোনামে প্রচ্ছদ প্রতিবেদন লিখেছেন সিরাজগঞ্জ মেডিক্যাল কলেজ এর মনোরোগবিদ্যা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও মনোরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. ওয়ালিউল হাসনাত সজীব

হাওয়া বদল: মনের স্বাস্থ্যের ওপর প্রভাব কতটুকু? ”-শিরোনামে আরো একটি প্রচ্ছদ প্রতিবেদন লিখেছেন চট্রগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ এর মনোরোগবিদ্যা বিভাগের প্রধান ডা. পঞ্চানন আর্চায্য

বায়ুদূষণ শব্দদূষণ দূষণ দেহে, মনেও ” শিরোনামে প্রচ্ছদ প্রতিবেদন বিভাগে রয়েছে কথাসাহিত্যিক ও মনোরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. মোহিত কামাল এর একটি লেখা।

ঢাকা কমিউনিটি হাসপাতাল এর মনোরোগবিদ্যা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. সৃজনী আহমেদ প্রচ্ছদ প্রতিবেদন বিভাগে লিখেছেন “অপরিকল্পিত নগরায়ণ ও নিরাপত্তাহীন মন ” শিরোনামে।

মনের খবর মার্চ সংখ্যায় নারী দিবস উপলক্ষ্যে রয়েছে কথা সাহিত্যিক ডা. মনীষা চক্রবর্তী এর সাক্ষাৎকার।

“স্থাপত্য সবসময়ই মানুষের মনকে প্রভাবিত করে” শিরোনামে বিশেষ আয়োজন বিভাগে রয়েছে গৌরব কুন্ডু এর লেখা।

মানসিক রোগ এবং শারীরিক রোগ বিভাগে “নারী নির্যাতন গুরুতর মানসিক রোগের কারণ হতে পারে ” শিরোনামে লিখেছেন মানসিক রোগ বিশেষজ্ঞ ডা. জেসমিন আখতার

মানসিক রোগ চিকিৎসা বিভাগে “মানসিক রোগীদের শেকলে বেঁধে রাখা: এখন ইতিহাস” শিরোনামে লিখেছেন কেন্দ্রীয় মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্র এর মানসিক রোগ বিশেষজ্ঞ ডা. রাহেনুল ইসলাম

শিশু মন এবং অভিভাবকত্ব বিভাগে “শিশুর মানসিক বিকাশে পরিবেশ সরাসরি জড়িত”-শিরোনামে লিখেছেন প্রেসিডেন্ট আব্দুল হামিদ মেডিক্যাল কলেজ এর সহকারী অধ্যাপক ডা. মাহ্জাবিন আফতাব সোলায়মান

“নগরায়নের ফাঁদে খেলাধুলাহীন প্রজন্ম জড়াচ্ছে আসক্তিতে ”– শিরোনামে মাদকাসক্তি বিভাগে রয়েছে সিলেট ওসমানি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল এর রেসিডেন্ট ডা. রেজওয়ানা হাবীবা এর একটি লেখা।

“পরিবেশ যৌনস্বাস্থ্যকে প্রভাবিত করে”-শিরোনামে যৌনস্বাস্থ্য-সম্পর্ক বিভাগে লিখেছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের মনরোগবিদ্যা বিভাগের কনসালটেন্ট ডা. এস এম আতিকুর রহমান

“মানুষ অনেক কিছু পেতে পেতে হারাতে হারাতেই বার্ধ্যক্যে পৌঁছায়” শিরোনামে প্রবীণ মন বিভাগে লিখেছেন সিলেট জালালাবাদা রাগীব রাবেয়া মেডিক্যাল কলেজ এর মনোরোগবিদ্যা বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. সুষ্মিতা রায়

“পরিবেশ দূষণ : স্বাস্থ্য ও ক্রীড়ানৈপুণ্যে ব্যাঘাত করে” শিরোনামে মন ও ক্রীড়া বিভাগে লিখেছেন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ এর মনোরোগবিদ্যা বিভাগের রেজিষ্ট্রার ডা. রাইসুল ইসলাম পরাগ

“ব্যক্তিত্বের গঠন জেনেটিক্সের চেয়ে পরিবেশের নিয়ন্ত্রণ বেশি ”– শিরোনামে গবেষণা বিভাগে লিখেছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের রেসিডেন্ট এমডি (চাইল্ড অ্যান্ড অ্যাডোলসেন্ট সাইকিয়াট্রি) ডা. সাদিয়া আফরিন

মনস্তত্ত্ব বিভাগে আলবার্ট আইনস্টাইন’কে নিয়ে লিখেছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের রেসিডেন্ট এমডি ডা. সৌবর্ণ রায় বাঁধন

“পরিবর্তনশীল পরিবেশ ও মানুষের টিকে থাকা ” শিরোনামে যুগে যুগে বিভাগে রয়েছে বন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের রেসিডেন্ট ডা. কৃষ্ণ রায় এর লেখা।

ট্যুরিজম বিষয়ে মনোসামাজিক বিশ্লেষণ বিভাগে কথা বলেছেন সমাজের বিভিন্ন শ্রেনী পেশার ব্যক্তিবর্গ।

“হঠাৎ বিরূপ পরিস্থিতি: আতঙ্ক নয় প্রয়োজন যথাযথ কৌশল” শিরোনামে সমসাময়িক রয়েছে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল এর মনোরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. শাহরিয়ার ফারুক অনিক এর লেখা।

দেশের খবর এর পাশাপাশি প্রতিসংখ্যার মত এই সংখ্যায়ও বিভিন্ন জটিল বিষয়ে পাঠকের প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন দেশের খ্যাতনামা মানসিক রোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. হেদায়েতুল ইসলাম, অধ্যাপক ডা.মামুন হুসাইন, অধ্যাপক ডা. নাহিদ মাহজাবিন মোর্শেদ, অধ্যাপক আব্দুল হামিদ, অধ্যাপক ডা. নিজাম উদ্দিন এবং অধ্যাপক ডা. জ্যোর্তিময় রায়

এছাড়াও মনের খবর মার্চ সংখ্যায় পাঠকরা টিপস বিভাগে পাবেন “পরিবেশ যাই হোক, মন ঠিক রাখতে যা করবেন” শিরোনামে মাহজাবিন শান্তা’র লেখা।

পরিবেশ দূষণ ও মানসিক রোগ বিষয়ক এই সংখ্যাটি এখন বাজারে পাওয়া যাচ্ছে, পাঠকরা চাইলে সংগ্রহ করতে পারবেন সংখ্যাটির পিডিএফ কপিও।

পিডিএফ পেতে ও ম্যাগাজিন প্রাপ্তিস্থান জানতে নিচের লিংক দেখুন :

ম্যাগাজিন প্রাপ্তিস্থান: https://www.monerkhabor.com/stall/

পিডিএফ: https://www.monerkhabor.com/print-pdf/

সরসারি পেতে যোগাযোগ করুন: ০১৭৯৭২৯৬২১৬ নম্বরে।