অধ্যাপকহীন সরকারি মেডিকেল কলেজগুলোর মনোরোগবিদ্যা বিভাগ 1

অধ্যাপকহীন সরকারি মেডিকেল কলেজগুলোর মনোরোগবিদ্যা বিভাগ

‘অধ্যাপক’ ছাড়াই চলছে দেশের সকল সরকারি মেডিকেল কলেজের মনোরোগবিদ্যা বিভাগের কার্যক্রম। দেশের প্রথম ৮টি সরকারি মেডিকেল কলেজের মনোরোগবিদ্যা বিভাগে অধ্যাপকের পদই নেই। আর বাকিগুলোয় অধ্যাপকের পদ রয়েছে কিন্তু নিয়োগ হয় না।

দেশে মোট ২৮টি সরকারি মেডিকেল কলেজ রয়েছে। এসব কলেজের মধ্যে ১৮টির মনোরোগবিদ্যা বিভাগ রয়েছে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ঢাকা মেডিকেল কলেজ, স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ, সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ, রাজশাহী মেডিকেল কলেজ, এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ, শের-এ বাংলা মেডিকেল কলেজ, রংপুর মেডিকেল কলেজ, কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ, খুলনা মেডিকেল কলেজ, শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ, ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ,  দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ, পাবনা মেডিকেল কলেজ, নোয়াখালী মেডিকেল কলেজ, কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ, যশোর মেডিকেল কলেজে মনোরোগবিদ্যা বিভাগ আছে কিন্তু কোনটিতেই ‘অধ্যাপক’ নিয়োগ হয়নি। বাকি ১০টি সরকারি মেডিকেল কলেজে মনোরোগবিদ্যা বিভাগই নেই।

অধ্যাপক পদ না থাকা, নিয়োগ না হওয়ার কারণ ও এ বিষয়ে কতটুকু অগ্রগতি হয়েছে জানতে চাইলে জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের ডিপার্টমেন্ট অব চাইল্ড বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. মো. ফারুক আলম মনেরখবর.কমকে বলেন, ‘প্রথম যে ৮টি মেডিকেল কলেজ প্রতিষ্ঠিত হয়েছে সেখানেই অধ্যাপক পদ নেই। যখন সেখানে শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হয় তাতে অধ্যাপকের কোনো পদের কথা উল্লেখ ছিল না, যা এখনও বলবৎ রয়েছে।

‘অধ্যাপক’ নিয়োগের ক্ষেত্রে কলেজের মনোরোগ বিদ্যা বিভাগের শিক্ষকদের দায়িত্বের অভাব রয়েছে বলে মনে করছেন এই অধ্যাপক। তিনি বলেন, ‘এক্ষেত্রে মেডিকেল কলেজের দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষকদের দূরদর্শিতার অভাব রয়েছে। মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব পাঠিয়ে তার সাথে লেগে থাকতে হয়। অনেক সময় সেই দায়িত্বের অভাব দেখা যায়।’

তবে বিভিন্ন মেডিকেল কলেজের মনোরোগ বিদ্যা বিভাগের শিক্ষকরা বলছেন, অধ্যাপক প্রয়োজন ও নিয়োগ সংক্রান্ত বিভিন্ন প্রস্তাব বিভিন্ন সময় মন্ত্রণালয়ের কাছে পাঠিয়েছেন। এ বিষয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজের সহযোগী অধ্যাপক খালেদা বেগম মনেরখবর.কমকে জানান, ‘বহুবার খালি পদে লোক নিয়োগ প্রয়োজন’ সংক্রান্ত চাহিদাপত্র সাইকিয়াট্রি এসোসিয়েশনে জমা দেয়া হয়েছিলো কিন্তু তাতে কোন লাভ হয় নি ।’

মনোরোগবিদ্যা বিভাগে একজন অধ্যাপকের সবচেয়ে বড় চাহিদা আছে ও খালি পদে শিগগিরই নিয়োগের প্রয়োজন আছে বলে মনে করছেন সিলেটের এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মানসিক রোগ বিভাগ প্রধান ডা. আর কে এস রয়েল। তিনি মনেরখবর.কমকে বলেন, ‘একটি বিভাগের অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাজ আছে যা একজন অধ্যাপক ছাড়া অসম্ভব। সেজন্য একজন অধ্যাপক প্রয়োজন রয়েছে এবং শিগগিরই বিভিন্ন কলেজে খালি পদে অধ্যাপক নিয়োগ হওয়া প্রয়োজন।’

মনোরোগবিদ্যা বিভাগে ‘অধ্যাপক’ নিয়োগের ক্ষেত্রে অন্যান্য প্রতিবন্ধকও রয়েছে বলে অধ্যাপক ডা. মো. ফারুক আলম মনে করেন। তার মতে, ‘মেডিকেল কলেজগুলোতে মেডিসিন, সার্জারি বিভাগের প্রভাব বেশি থাকে। সেক্ষেত্রে তাদেরও একটা প্রভাব রয়েছে। পরবর্তীতে যে মেডিকেল কলেজগুলো প্রতিষ্ঠিত হয়েছে সেখানে অধ্যাপকের পদ খালি থাকলেও সেখানে কোনো শিক্ষক নিয়োগ হয় নি। তবে আশার বিষয় হলো, মন্ত্রণালয় থেকে নতুন একটি ফরম এসেছে সেখানে পুনরায় অধ্যাপক নিয়োগ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব অন্তর্ভুক্ত করা হবে।’

দেশের সরকারি মেডিকেল কলেজগুলোর তালিকা নিচে দেয়া হলো:

ক্রমিক  মেডিকেল কলেজের নাম
ঢাকা মেডিকেল কলেজ, ঢাকা
স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ, ঢাকা
বেগম খালেদ জিয়া মেডিকেল কলেজ ও সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল, ঢাকা
ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ, ময়মনসিংহ
চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ, চট্টগ্রাম
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ, রাজশাহী
এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ, সিলেট
শের-এ বাংলা মেডিকেল কলেজ, বরিশাল
রংপুর মেডিকেল কলেজ, রংপুর
১০কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ, কুমিল্লা
 ১১খুলনা মেডিকেল কলেজ, খুলনা
১২শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ, বগুড়া
১৩ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ, ফরিদপুর
১৪দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ, দিনাজপুর
১৫পাবনা মেডিকেল কলেজ, পাবনা
১৬নোয়াখালী মেডিকেল কলেজ, নোয়াখালী
১৭কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ, কক্সবাজার
১৮যশোর মেডিকেল কলেজ, যশোর
১৯কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ
২০টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজ
২১সিরাজগঞ্জ মেডিকেল কলেজ
২২আব্দুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজ, নোয়াখালী
২৩সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ, কিশোরগঞ্জ
২৪সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ
২৫রাঙ্গামাটি মেডিকেল কলেজ
২৬মানিকগঞ্জ মেডিকেল কলেজ
২৭গোপালগঞ্জ মেডিলেক কলেজ
২৮গাজীপুর মেডিকেল কলেজ

প্রতিবেদক, মনের খবর.কম